প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইসলামের মাহাত্ম্য ও মহানুভাব সম্পর্কে ধারণা পাচ্ছে রাসূলে (সা.) এর জীবন থেকেই: আমিনুল ইসলাম

আবদুল করিম:  [২] বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, রাসূল (সা.) এর ৬৩ বছর জীবনে অন্য কোন ধর্মের মানুষ দূরে থাক, কোনো মানুষকে হেয় করেনি, অবমাননা করেনি, ভালোবাসা দিয়ে তাদের জয় করেছেন। ভালোবাসা দিয়ে জয় করেছেন বলেই ইসলাম প্রতিদিন উজ্জ্বল থেকে উজ্জলতর হচ্ছে। আজকে ইউরোপ আর আমেরিকাতে কোন নবী রাসূল যায়নি। কিন্তু প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ ইসলাম গ্রহণ করছেন। কারণ, তারা ইসলাম সম্পর্কে জানছেন। ইসলামের মাহাত্ম্য ও মহানুভাব সম্পর্কে ধারণা পাচ্ছে রাসূলে (সা.) এর জীবন থেকেই। এইজন্য আজকে ইসলামের জয়জয়কার।

[৩] চট্টগ্রাম লোহাগাড়া চুনতীস্থ শাহ্ মনজিল সীরত ময়দানে শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) জুমাবার রাতে শাহ সাহেব কেবলা চুনতী কর্তৃক প্রবর্তিত ১৯ দিনব্যাপী ৫১ তম সীরতুন্নবী (সা.) মাহফিলের ১২ তম দিনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আমিনুল ইসলাম আমিন এসব কথা বলেন।

[৪] তিনি বলেন, মদিনা মনোয়ারার যেই ইসলাম সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়েছে, সেই ইসলামের স্পিড যদি আমরা মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারি, তাহলেই এই মাহফিল যেমন আরও উজ্জ্বল হবে। আমাদের ইমানের ত্যাজ আরও বেগবান হবে। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য- তবুও কখনো কখনো মাহফিলগুলোতে সীমানা অতিক্রম করে হীন রাজনৈতিক স্বার্থে সেগুলোকে ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় ব্যবহার করে ফেলি। যেটা আসলেই কারও জন্য মঙ্গলজনক নয়।

[৫]  আমিনুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে আমরা এদেশে কঠিন একটা সময় অতিক্রম করেছি। কিছুদিন আগে হিন্দুদের বড় উৎসবকে কেন্দ্র করে সারা বাংলাদেশ একটা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমাদের মুসলমানদের সবচেয়ে বড় যে পরীক্ষাটা দেওয়া উচিত ছিল। আমরা সেই ধৈর্যের পরীক্ষাটা দিতে পারিনি। সেটাকে আমরা উস্কে দিয়েছি। এখানে কার সাফল্য কার ব্যর্থতা আমি বলছি না। তবে, এতে ইসলাম মহিমান্বিত হচ্ছে না। অন্য ধর্ম সম্পর্কে আল্লাহ কী বলেছে, রাসূল (সা.) কী বলেছে? সেই সম্পর্কে আমাদের জানতে হবে। ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলাম ছাড়া পৃথিবীর আর কোন ধর্ম শান্তি জন্য, কল্যাণের জন্য ডাকে না।

[৬] এদিন বাদ জুমা হাফেজ মুহাম্মদ তানসীরের কোরআন তেলাওয়াত দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয় । কোরআত তেলাওয়াতে আরও অংশ নেন হাফেজ মাওলানা জাহেদুল হক । দিনের তিন অধিবেশনে ধর্মীয় আলোচনার অংশগ্রহণ করেন গারাংগিয়া ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা আবদুল কাদের নিজামী , চকরিয়াস্থ দারুল ইরফান মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আলহাত্ব হাফেজ মাওলানা নুরুল কাদের , ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় – ঢাকার আরবি বিভাগের প্রভাষক আলহাড় মাওলানা হারুনুর রশিদ , রামুর জোয়ারিয়ানামা এমদাদুল উলুম মাদরাসার মুহাদ্দিস আলহাজু হাফেজ মাওলানা আবদুল হক ও পটিয়া জিরি মাদরাসার মুহতামিম আলহাজ্ব মুফতি মাওলানা মুহাম্মদ খোবাইব।

সর্বাধিক পঠিত