প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আসিফ আকবর: ক্ষমতামুখী রাজনৈতিক দলগুলো গণমুখী থেকে সোনামুখী সুঁই হয়ে গেছে

আসিফ আকবর
চারটা ইংরেজি রচনা শিখতে পারলে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত বিশ নম্বরের উত্তর দেওয়া খুব সহজ মনে করতাম।[1] The Cow [2] Jute [3] News Paper [4] Flood in Bangladesh. আর ব্যাকআপ হিসেবে কারণে অকারণে Aim in Life রচনাটা সেট করতে হতো। লাইফের গতিবিধি সবচেয়ে ভুল পথে যাওয়ার মূল কারণ এই অন্ধ রাডার। পরীক্ষায় পাস করার জন্য একধরনের এইম ইন লাইফ সেটিং করা থাকে। গৎবাঁধা পড়ালেখার প্রেশারে আসল মেধাটাই আলোর মুখ দেখে না। তবে Flood in Bangladesh সলিডভাবে চলছে। তিস্তা পাড়ে ধুধু বালুচরের হাহাকার শেষে গজলডোবা হয়ে উজানের পানিতে উত্তরের জনপদ ভাসছে। ক্রিকেট, দুর্গাপূজাকেন্দ্রিক সম্প্রীতিহানির অসভ্যতা, লাগামহীন দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির যাতনা ভুলে গিয়ে আজ আমরা এক নির্লজ্জ ফুর্তিবাজ জাতি। সবচেয়ে প্রিয় আর অপ্রিয় বন্ধু ভারত পানি ঢেলে দিয়েছে বাংলাদেশের দিকে হেমন্তের প্রারম্ভে। ফসল আর কৃষকের দফারফা হয়ে গেছে ইতোমধ্যে। পত্র-পত্রিকায় এই আকস্মিক বন্যার দুর্ভোগের গজব নিয়ে কোনো গুরুত্ববহ আলোচনা দেখি না।

ক্ষমতামুখী রাজনৈতিক দলগুলো গণমুখী থেকে সোনামুখী সুঁই হয়ে গেছে। ভারতীয় অতিথি পানির বছর বছরের আগ্রাসন নিয়ে সরকারদলীয় ভক্তরাও একেবারে স্পিকটি নট অবস্থানে। এ যেন প্রতিবেশীর দেওয়া এক নৈস্বর্গিক উপহার। বানের পানি রাজনৈতিক ভেদাভেদ মাথায় নিয়ে কারও ঘরে ঢুকে না মামু। পাছায় চর্বি জমে যাওয়া হালের বুর্জোয়াদের চাবকানো সম্ভব হচ্ছে না। এই পপকর্নগুলোর কানে, চোখে, নাকে, মাথায় শুধু চর্বি আর চর্বি। তারা খুদ বিতরণ করে ব্যাংক বাণিজ্য লুটপাট করছে, আর চামচালোগ নেতাপ্রেমী গানে গানে পেটের ভেতরেই হাগছে, হেগেই যাচ্ছে। আমার দায়িত্ব মনে করিয়ে দেওয়া, আর তুই মামা সুবিধাভোগী তো হতে পারবি না কখনোই, তবে আরও উন্নত দালাল সামনে পাবি এটা নিশ্চিত। দেশের সঙ্গে গাদ্দারী করেই তো বাঁচবি, সুযোগ পেলে ড্রিবলিং করা গাদ্দারদের ইতিহাস একটু পড়ে নিস ভাইলোগ। ভালোবাসা অবিরাম।
ASIF-র ফেসবুক পেজে লেখাটি পড়ুন।

সর্বাধিক পঠিত