প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টেসলার বাজার মূলধন প্রথমবার ট্রিলিয়ন ডলার ছাড়াল

রাশিদ রিয়াজ : মার্কিন গাড়ি ভাড়া কোম্পানি হার্টজ বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরি কোম্পানি টেসলার কাছে ১ লাখ গাড়ি কেনার অর্ডার দেওয়ার পর ট্রিলিয়ন ডলার কোম্পানিতে পরিণত হল টেসলা। হার্টজ যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশ মিলিয়ে আন্তর্জাতিকভাবে ১২ হাজার কর্পোরেট ও ফ্র্যাঞ্চাইজি পরিচালনা করে। আরটি

টেসলার সিইও এলন মাস্ক বিশ্বের শীর্ষ ধনী এবং তার কোম্পানি হার্টজের কাছ থেকে এমন রেকর্ড সংখ্যক গাড়ির অর্ডার পাওয়ার পর তার কোম্পানির শেয়ার মূল্য নাসডাক শেয়ারবাজারে ১৫ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। টেসলার প্রতিটি শেয়ার মূল্য দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৪৫ ডলার। অথচ একদিন আগেই টেসলার শেয়ার মূল্য ছিল ৯শ ডলার। টেসলার শেয়ার সংখ্যা রয়েছে ১ দশমিক শুন্য ৮৩ বিলিয়ন। যার বাজার মূল্য দাঁড়িয়েছে ১,১৩ ট্রিলিয়ন ডলার। এলন মাস্ক টেসলার ২২.৪ শতাংশ শেয়ারের মালিক হিসেবে তার মূলধন বৃদ্ধি পেয়েছে ২৫৩.৫ বিলিয়ন ডলার। দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্ম নেওয়া এই উদ্যোক্তা গত সেপ্টেম্বরে বিশ্বের শীর্ষ ধনী অ্যামাজনের মালিক জেফ বেজোসকে ২শ বিলিয়ন ডলারের সম্পদের বিবেচনায় ছাড়িয়ে যান। ফোর্বস ম্যাগাজিন বলছে বেজোসের চেয়ে এলন মাস্কের কাছে ৫৫ বিলিয়ন ডলারের সম্পদ বেশি রয়েছে। সর্বশেষ গত সোমবারেই মাস্ক ৩৩ বিলিয়ন ডলারের কাছাকাছি সম্পদ হস্তগত করেন।

এদিকে বিনিয়োগকারীরা গত দুই সপ্তাহে যেভাবে পেরেছেন টেসলার শেয়ার কিনেছেন। কারণ তারা জানতেন হার্টজ বিপুল সংখ্যক বৈদ্যুতিক গাড়ি কিনতে যাচ্ছে টেসলার কাছ থেকে। হার্টজ বলছে তারা উত্তর আমেরিকার বৃহত্তম গাড়ি ভাড়া কোম্পানিতে পরিণত হওয়ার জন্যেই টেসলার কাছ থেকে লক্ষাধিক গাড়ি কিনছে। প্রথম পর্যায়ে টেসলা মডেল থ্রি গাড়ি কিনছে হার্টজ। আগামী নভেম্বর থেকে টেসলা এসব গাড়ি সরবরাহ শুরু করবে এবং তা চলবে ২০২২ সাল পর্যন্ত।

হার্টজের অন্তর্বর্তীকালীন সিইও মার্ক ফিল্ডস বলেন, বৈদ্যুতিক গাড়ির কদর এখন বাজারে সবচেয়ে বেশি এবং বিশ্বে পরিবেশগত গাড়ির কারণে এধরনের গাড়ির চাহিদা সর্বাধিক। বিষয়টি লক্ষ্য রেখে ব্যবসায়ীক স্বার্থেই তার কোম্পানি তাদের গাড়ির বহরে বৈদ্যুতিক গাড়ির সংখ্যা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর আগে এলন মাস্ক ঘোষণা দেন টেসলার সদর দপ্তর সিলিকন ভ্যালি থেকে টেক্সাসে স্থানান্তরিত হবে। এজন্যে খরচ করতে হবে ৪.২ বিলিয়ন ডলার। তবে হার্টজের কাছ থেকে পাওয়া গাড়ি কেনার অর্ডারই এখন পর্যন্ত টেসলার কাছে সবচেয়ে বড় অর্ডার। এ কারণেই গত বছরের তুলনায় টেসলার বাজার মূলধন দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত দুই সপ্তাহে টেসলার শেয়ার মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে ১৬ শতাংশ। তৃতীয় প্রান্তিকে টেসলার আয় বেড়েছে ৫৭ শতাংশ যা গত বছর ছিল ১৩.৮ট্রিলিয়ন ডলার। টেসলার কাছে এখন মোট ২ লাখ ৪১ হাজার নতুন বৈদ্যুতিক গাড়ি বিক্রির অর্ডার রয়েছে। এ্যাপেল, মাইক্রোসফট, অ্যামাজন ও আরামকোর পর টেসলাই হচ্ছে বিশে^র আরেক ট্রিলিয়ন ডলার কোম্পানি। আরামকোর বাজার মূল্যধন ২ ট্রিলিয়ন ও এ্যাপেলের বাজার মূলধান আড়াই ট্রিলিয়ন ডলার।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত