প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এই প্রথম মহাকাশে তৈরি হচ্ছে সিনেমা, মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছেছেন অভিনেত্রী-পরিচালক

নিউজ ডেস্ক: পৃথিবীর বাইরে প্রথমবারের মতো কোনো চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে (আইএসএস) পৌঁছেছেন এক রাশিয়ান অভিনেত্রী এবং পরিচালক। মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) ১২ দিনের শুটিংয়ের জন্য আইএসএস-এ পৌঁছেছেন তারা। ঢাকা ট্রিবিউন

এর মধ্য দিয়ে টম ক্রুজ, ইলন মাস্কের স্পেসএক্স ও নাসাঘোষিত হলিউড চলচ্চিত্র “মিশন ইম্পসিবল”-কে পরাজিত করে প্রথম কোনো চলচ্চিত্র হিসেবে মহাকাশে শুটিং হচ্ছে রাশিয়ান চলচ্চিত্র “দ্য চ্যালেঞ্জ”-এর।

৩৭ বছর বয়সী অভিনেত্রী ইউলিয়া পেরেসিল্ড এবং ৩৮ বছর বয়সী পরিচালক ক্লিম শিপেনকো পূর্বনির্ধারিত সময়ে সোভিয়েত কাজাখস্তানের রাশিয়া-লিজকৃত বাইকনুর কসমোড্রোম থেকে যাত্রা শুরু করেন।

অভিজ্ঞ মহাকাশচারী এবং মহাকাশযান “সোয়ুজ এমএস-১৯”-এর ক্যাপ্টেন অ্যান্টন শাকপ্লেরভ মঙ্গলবার ব্রিটেনের সময় সন্ধ্যা ৬টা ২২মিনিটে আইএসএস-এ ল্যান্ড করেন।

মহাকাশযানের হ্যাচগুলো খোলার সঙ্গে সঙ্গেই রাশিয়ান ত্রয়ীকে স্বাগত জানান স্টেশনে উপস্থিত দুজন রাশিয়ান, একজন ফরাসি, একজন জাপানি এবং তিনজন নাসা নভোচারী।

“আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে স্বাগতম,” রাশিয়ান মহাকাশচারী ওলেগ নোভিটস্কি আইএসএস থেকে টুইট করে জানান।

সিনেমার প্লট এবং বাজেটের কথা পরিষ্কার করে না জানালেও এএফপি জানিয়েছে, গল্পটি একজন নারী সার্জনকে ঘিরে। যাকে আইএসএস-এ একজন মহাকাশচারীকে বাঁচানোর জন্য পাঠানো হয়।

একই সঙ্গে, ৪৯ বছর বয়সী শাকাপ্লেরভ এবং আইএসএস-এ থাকা দুই রাশিয়ান মহাকাশচারী ছবিতে ক্যামিও চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলে জানা গেছে।

ক্রেমলিনভিত্তিক গণমাধ্যম ওয়ান টিভি নেটওয়ার্কের প্রধান এবং চলচ্চিত্রের সহ-প্রযোজক কনস্ট্যান্টিন আর্নস্ট এএফপিকে বলেছেন, “তারা মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছানোর পরপরই আমার সঙ্গে কথা বলেছে। তারা শারীরিক এবং মানসিকভাবে ভালো আছে।”

কাজটি কঠিন ছিল

চলচ্চিত্রের মূল চরিত্রটির জন্য প্রায় তিন হাজার আবেদনকারীর মধ্যে থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন পেরেসিল্ড।

ফ্লাইটের আগে সংবাদ সম্মেলবনে তিনি বলেছিলেন, “এটি মানসিক, শারীরিক এবং আবেগের দিক দিয়ে অনেক কঠিন ছিল। কিন্তু আমি মনে করি যখন আমরা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছাব তখন এই চ্যালেঞ্জগুলোকে এতটা খারাপ মনে হবে না।”

শিপেনকো এবং পেরেসিল্ড, নোভিটস্কির সঙ্গে ক্যাপসুলে করে ১৭ অক্টোবর পৃথিবীতে ফিরে আসবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

নোভিটস্কি গত ছয় মাস ধরে আইএসএস-এ ছিলেন।

আর্নস্ট এএফপিকে বলেন, ফিল্ম ক্রু তাদের অবতরণের ভিডিও তৈরি করবে, যা চলচ্চিত্রেও থাকবে।

এই মিশনটি সফল হলে তা রাশিয়ার মহাকাশ ইন্ডাস্ট্রিতে “সর্বপ্রথম”-এর তালিকায় আরও একটি পালক যুক্ত করবে।

সোভিয়েত রাশিয়া প্রথম কৃত্রিম স্যাটেলাইট “স্পুটনিক” উৎক্ষেপণ করে। পরে একে একে প্রথম প্রাণী হিসেবে লাইকা নামের একটি কুকুর, প্রথম পুরুষ হিসেবে ইউরি গ্যাগারিন এবং প্রথম নারী হিসেবে ভ্যালেন্তিনা তেরেসকোভাকে কক্ষপথে পাঠিয়েছিল।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেন, “মহাকাশ সেই জায়গা যেখানে আমরাই অগ্রগামী, যেখানে আমরা মোটামুটি আত্মবিশ্বাসী অবস্থান বজায় রেখেছি।”

কিন্তু সোভিয়েত যুগের সঙ্গে তুলনা করলে, আধুনিক রাশিযয়ার মহাকাশ সংস্থাটি এখনও সোভিয়েত নির্মিত প্রযুক্তির ওপর নির্ভরশীল।

এছাড়া, সোভিয়েত পরবর্তী রাশিয়া দুর্নীতির কেলেঙ্কারি এবং বিফল উৎক্ষেপণসহ বেশ কয়েকটি বিপত্তিরও সম্মুখীন হয়েছে। ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের কঠিন প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হয়ে রাশিয়া বিশ্বব্যাপী মহাকাশ দৌড়েও পিছিয়ে পড়ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত