প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রংপুরে তিনদিন পর ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৯

আফরোজা সরকার: রংপুর বিভাগে করোনায় টানা তিন দিন পর ফের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের আট জেলার মধ্যে শুধু রংপুরে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে বিভাগে ৯ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন। বর্তমানে শনাক্তের হার ৪ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

শনিবার (০২ অক্টোবর) দুপুরে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মোতাহারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে ১৯০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা শনাক্ত ঠাকুরগাঁওয়ের তিন এবং দিনাজপুরের ছয়জন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে ২১ জন সুস্থ হয়েছেন।

এর আগের দিন শুক্রবার (০১ অক্টোবর) মৃত্যুহীন দিনে বিভাগে ১৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। সেদিন বিভাগে শনাক্তের হার ছিল ২ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

গত বছরের মার্চে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত রংপুর বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ২৩৪ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে দিনাজপুরে। এ জেলায় সর্বোচ্চ ৩২৫ জন মারা গেছেন।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বিভাগীয় জেলা রংপুরে। জেলা হিসেবে সবচেয়ে কম ৬৩ জন মারা গেছেন গাইবান্ধায়। এ ছাড়া ঠাকুরগাঁওয়ে ২৫০ জন, নীলফামারীতে ৮৮ জন, পঞ্চগড়ে ৮০ জন, কুড়িগ্রামে ৬৮ জন ও লালমনিরহাটে ৬৭ জন মারা গেছেন।

এখন পর্যন্ত বিভাগে মোট ২ লাখ ৮১ হাজার ৮৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৪ হাজার ৯৫৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত বিভাগে সুস্থ হয়েছেন ৫১ হাজার ৮২৫ জন।

এদিকে রংপুর বিভাগে চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ০১ অক্টোবর পর্যন্ত ৫৫ লাখ ১০ হাজার ৭৮১ জনকে করোনার ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে। এ বিভাগের আট জেলায় প্রায় পৌনে দুই কোটি মানুষের বসবাস।

রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক মোতাহারুল ইসলাম বলেন, গণটিকাসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষকে টিকার আওতায় আনার ফলে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার কমে আসছে। তবে যেভাবে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত হচ্ছে তা উদ্বেগজনক। করোনা প্রতিরোধে জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। বাইরে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করা জরুরি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত