প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডিসকাউন্টের হার বেঁধে দেওয়া হবে ই-কমার্সে

নিজস্ব প্রতিবেদক:  অনলাইন প্ল্যাটফরম, বিশেষ করে ই-কমার্স থেকে কোনাকাটায় আমাদের আরও সচেতন হতে হবে উল্লেখ করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ই-কমার্সে বিভন্ন পণ্যের ছাড়ের হার বেঁধে দেওয়া হবে। তা হতে হবে পণ্যটির বাজার মূল্যের সঙ্গে মিল রেখে বা কাছাকাছি। অতিরিক্ত ছাড় ক্রেতাদের প্রলুব্ধ করছে। গতকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে ডিআরইউর অ্যাপ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আলিবাবা, ই-বে এবং অ্যামাজনের মতো প্রতিষ্ঠান শুরুর দিকে ছাড় দিয়ে পণ্য বিক্রি করলেও পরে সমন্বয় করেছিল। অবিশ্বাস্য রকম মুনাফা দেওয়ার যে আশ্বাস, এতে বড় ধরনের অস্বাভাবিক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। যাদের উদ্দেশ্য ভালো ছিল, তারা টাইমিংটা ঠিক মতো করতে পারেনি। আর যাদের উদ্দেশ্য গোড়াতে গলদ ছিল তাদের জন্যই সমস্যাটা দেখা দিয়েছে। তিনি বলেন, করোনাকালে ই-কমার্সে অনেক প্রবৃদ্ধি হয়েছে। এটা ধরে রাখতে হবে। বিটকয়েন নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পলক বলেন, বিশ্ব এখন অনেক এগিয়ে গেছে। আমরাও পিছিয়ে থাকতে চাই না। আমরা বিটকয়েন, ক্রিপ্টোকারেন্সি, ডিজিটাল মুদ্রা নিয়ে আলোচনা করতে চাই। একবারে বাদ দিয়ে দিতে চাই না। আলোচনা অন্তত হোক। তাহলে এর ভালো মন্দ বেরিয়ে আসবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, অক্টোবর মাসকে আমরা সাইবার সিকিউরিটি মাস ঘোষণা করতে যাচ্ছি।

এই আয়োজন আমাদের সাইবার দুনিয়ায় নিরাপদ থাকতে সহায়তা করবে। আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, দেশের ৫০ শতাংশ ব্যাংক দেশে তৈরি সফটওয়্যার ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা ব্যবহার করে।
তিনি আরও জানান, দেশের প্রযুক্তি খাতে নারীর অংশগ্রহণ ১৫ শতাংশের বেশি। ২০৩০ সালের মধ্য সরকার তা ৩০ শতাংশে উন্নীত করতে চায়। ডিআরইউ সভাপতি মুরসালিন নোমানীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত