প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভিক্ষা বৃত্তি করলে ১ বছরের জেল ও অর্থ দণ্ডের ঘোষণা দেওয়া দিলো সৌদিআরব

আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব: [২] সৌদির মন্ত্রিসভার অনুমোদিত নতুন ভিক্ষাবিরোধী আইন অনুসারে, যারা ভিক্ষা করেন তাদের সর্বোচ্চ এক বছরের জেল এবং ১ লাখ সৌদি রিয়াল জরিমানা প্রদান করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

[৩] সৌদি গেজেটর প্রতিবেদনের বরাত জানা যায় যে, আইনের পঞ্চম অনুচ্ছেদে ভিক্ষাবৃত্তিতে নিয়োজিতদের শাস্তির বিধান করা হয়েছে। যারা ভিক্ষাবৃত্তিতে জড়িত বা ভিক্ষুকদের ম্যানেজ করে বা ভিক্ষুকদের একটি সংগঠিত গোষ্ঠীকে উৎসাহিত ও সাহায্য করার সঙ্গে জড়িত তাদের সর্বোচ্চ এক বছরের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১ লাখ সৌদি রিয়াল বা উভয় জরিমানা করা হবে।

[৪] যারা ভিক্ষাবৃত্তিতে নিয়োজিত কাউকে উৎসাহিত ও সাহায্য করার জন্য জড়িত তাদের সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদণ্ড বা ৫০,০০০ সৌদি রিয়ালের বেশি জরিমানা বা উভয় দণ্ড দেওয়া হবে।

[৫] জেলে থাকা এবং জরিমানা পরিশোধ করার পর নন-সৌদি ভিক্ষুককে নির্বাসনে পাঠানোর আইনে বিধান রয়েছে এবং তাদেরকে সৌদিতে কাজের জন্য আর আসতে দেওয়া হবে না। যে সকল সৌদি নারীদের স্বামী বা সন্তানহারা এবং যারা নন-সৌদি ভিক্ষুক তাদের নির্বাসন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে।

[৬] আইন অনুসারে, একজন ভিক্ষুক দ্বিতীয় বা তার বেশি সময় ধরে ভিক্ষার সাথে জড়িত থাকার জন্য গ্রেপ্তার হলে তাকে শাস্তি দেওয়া হবে।

[৭] আইনের চার অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে যে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সংস্থার সাথে সমন্বয় করে সৌদি ভিক্ষুকদের সামাজিক, স্বাস্থ্য, মনস্তাত্ত্বিক এবং অর্থনৈতিক অবস্থা সম্পর্কে গবেষণা করবে এবং কেস দ্বারা মামলা গ্রহণের পরে এই সমস্যাগুলি সমাধানের জন্য তাদের সহায়তা বাড়াবে। তাদের জন্য প্রয়োজনীয় যত্ন এবং সহায়তা প্রদানও করা হবে।

[৮] এটি উল্লেখযোগ্য যে মানব সম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে ২০১৮ সালে মোট ২,৭১০ জন সৌদি ভিক্ষুককে গ্রেপ্তার করা হয়েছিলো। এই ভিক্ষুকদের প্রায় ৭৯ শতাংশ মহিলা যা সংখ্যায় ২,১৪০ জন ​​মহিলা ছিল এবং পুরুষরা মোট ৫৭০ জন ছিল। সম্পাদনা: হ্যাপি

সর্বাধিক পঠিত