প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন ভানু লাল রায়

হৃদয় দেবনাথ: [২] মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন শ্রীমঙ্গল সদর ৩নং সদর ইউনিয়নের টানা দুই বারের সফল চেয়ারম্যান বাবু ভানু লাল রায়। ৩নং সদর ইউনিয়নকেই শ্রীমঙ্গল উপজেলার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন হিসেবে ধরা হয় । টানা দুইবার ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের দায়িত্বে থাকাকালীন নিজ ইউনিয়ন পেরিয়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মসজিদ মন্দির সড়ক নির্মাণসহ গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের মন জয় করে নিয়েছে বাবু ভানুলাল রায়। শুধু তাই নয় যেকোনো দরিদ্র মানুষের মৃত্যুর খবর পেলে নিজ খরচে লাশের মাটি দেয়া /সৎকারের ব্যবস্থা করে আরো বেশি আলোচনায় আসেন তিনি ।করোনাকালীন সময়ে মানুষ যখন মানুষের কাছ থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন ঠিক সেই সময়ে একদল যুবককে সাথে নিয়ে শ্রীমঙ্গল উপজেলা সৎকার কমিটি গঠন করে,করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করা প্রতিটি লাশ নিজের সৎকার কমিটির লোকজনকে সাথে নিয়ে নিজ খরচে সৎকারের ব্যবস্থা করেছেন যা আজও চলমান আছে ।
গতকাল ১১ সেপ্টেম্বর শনিবার সকালে ঢাকায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভা থেকে বাবু ভানু লাল রায়কে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করে সিদ্ধান্তটি জানানো হয়।

[৩] বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া। ভানু লাল রায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার কোষাধ্যক্ষ একই সাথে শ্রীমঙ্গল উপজেলার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন ৩ নং সদর ইউনিয়নের একজন সফল চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এদিকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার খবরে শ্রীমঙ্গলের তৃণমূলের মানুষের মাঝে বইছে আনন্দের বন্যা ও মিস্টি বিতরণ। বাবু ভানু লাল রায় ২০১১ সালে ৩নং সদর ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে সর্বপ্রথম ইউপি সদস্য হিসেবে নির্বাচন করে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীকে বিপুল ভোট পরাজিত করে নির্বাচিত হন । তার পর থেকে তাকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি । ২০১১ সালে উপজেলার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন ৩ নং সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে তার প্রতিদ্বন্দ্বী শক্তিশালী প্রার্থীকে পরাজিত করে ফের বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।এখন পর্যন্ত তাকেই ৩ নং সদর ইউনিয়নের উন্নয়নের রূপকার এবং সফল চেয়ারম্যান হিসেবেই মনে করেন তৃণমূলের সাধারণ মানুষ। শুধু তাই নয় স্থানীয় একাধিক সাধারণ চা শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, একসময় গুরুত্বপূর্ণ এই ৩ নং সদর ইউনিয়নটি ছিল সবচেয়ে অবহেলিত। কিন্তু বাবু ভানু লাল রায় এই ইউনিয়নের ইউপি সদস্য অতঃপর টানা দুইবার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই দিন রাত পরিশ্রম করে গুরুত্বপূর্ণ অবহেলিত এই ইউনিয়নটিকে একটি আধুনিক ইউনিয়নে রূপান্তর করেন । তার আমলেই ৩ নং সদর ইউনিয়ন ছাড়াও আশপাশের অনেক ইউনিয়নের উন্নয়নেও ওনার যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে বলে স্বীকারও করেন ইউপি সদস্য থেকে শুরু করে অন্যান্য ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ সহ তৃণমূলের খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ । বাবু ভানুলাল রায় রাজনৈতিক সংগঠন ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক অরাজনৈতিক জনসেবামূলক সংগঠনের সাথে যুক্ত থেকে মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন । প্রতিবেদকের সাথে একান্ত আলাপে বাবু ভানুলাল রায় জানান, সত্যিকারার্থে উপজেলা নির্বাচন করার কোনো ইচ্ছে আমার ছিলোনা । কিন্তু শুভাকাঙ্খী সমর্থক এবং তৃণমূলের সাধারণ মানুষের অনুরোধেই এবার তিনি শ্রীমঙ্গল উপজেলার উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন,পেয়েছেন দলীয় মনোনয়নও ।
এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন ,জনপ্রতিনিধিত্ব মূলত একটা নেশা । তিনি আরো বলেন, মানুষ জনপ্রতিনিধি হয়ে সম্পদ গড়েন আর আমি জনপ্রতিনিধি হয়ে সম্পদ বিক্রি করি । মানুষ আমাকে যে ভালোবাসায় আবদ্ধ করেছে সেই ঋণ শোধ করতেই আমি নিজেও তাদের কল্লানে নিজেকে সপে দিয়েছি। অতীতের মতোই অসহায় মানুষগুলোর মুখে হাঁসি ফুটাতে চাই ।তিনি আরো বলেন ,আমরা মানুষ ,আর মানুষ মাত্রই মরণশীল,যেহেতো আমাদের সকলকেই একদিন পৃথিবী ছেড়ে চলে যেতে হবে,মৃত্যুর স্বাধ গ্রহণ করতে হবে। তাই বাকিটা জীবন মানুষের কল্যানে দেশের কল্যানেই কাজ করে যেতে চাই । অন্তত মৃত্যুর পর ঈশ্বরকে বলতে পারবো সাধারণ খেটে খাওয়া গরিব দুঃখী মানুষের জন্য জীবনভর যে কাজগুলো করে এসেছি এগুলোই আমার আমলনামা। হয়তো এই সাধারণ মানুষগুলোর অন্তরাত্মার দোয়া/আশীর্বাদ আর ভালোবাসায় ঈশ্বর আমার অজান্তে হয়ে যাওয়া ভুলগুলোও ক্ষমা করে দিতে পারেন । তবে এ প্রতিবেদকের সাথে একান্ত আলাপচারিতায় আমৃত্যু জনকল্লানেই কাজ করে যাওয়ার ইচ্ছেই পোষণ করেন বাবু ভানু লাল রায় ।

[৪] উল্লেখ্য গত ২১ মে শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের টানা তিনবারের বিপুল ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান বাবু রণধীর কুমার দেব এর মৃত্যুতে উপজেলা চেয়ারম্যান পদটি শুন্য হয় । তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৭ অক্টোবর এই পদে ভোট গ্রহণ হবে। দলীয় মনোনয়নের জন্য ১০ জন প্রার্থী আওয়ামী লীগের দলীয় ফরম সংগ্রহ করে ঢাকায় জমা দেন। তাঁদের মধ্য থেকে শ্রীমঙ্গল সদর ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান বাবু ভানু লাল রায়কে কেন্দ্র থেকে দলীয় মনোনয়ন দেন ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত