প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ঢাকার ফুটবলে পাতানো ম্যাচ: চারজন আজীবন নিষিদ্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক: [২] বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে পাতানো খেলার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে প্রথম বিভাগে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে।

[৩] এছাড়া দলটির সাথে সংশ্লিষ্ট চার কর্মকর্তা মিনহাজুল ইসলাম, গওহর জাহাঙ্গীর রুশো, মাইদুল ইসলাম শেখ (ভারতীয়) ও আরিফ হোসেনকে আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিভিন্ন মেয়াদে সাজা হয়েছে ১৬ দেশি-বিদেশি ফুটবলার ও কর্মকর্তাদের। একই সঙ্গে দলটিকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

[৪] স্থানীয় খেলোয়াড়দের মধ্যে গোল রক্ষক আপেল মাহমুদ সবচেয়ে বেশি সাজা পেয়েছেন। তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে ৫ বছর। এছাড়া ৩ বছরের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন সাবেক খেলোয়াড় আবুল কাশেম, আল-আমিন, রকি, জাহিদ হোসেন, রাহাদ মিয়া, মোস্তাফিজুর রহমান সৈকত, শামীম রেজা ও অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক স্মিথ ব্রেডে ক্রিস্টিয়ানকে। ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় ছিজোবা ক্রিসচোফার, ওমর ফারুক, রাকিবুল ইসলাম, মেহেদী হাসান ও মিরাজ মোল্লা।

[৫] আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ গত বছর আর্থিক সমস্যায় ছিল। পুরোনো পরিচালকরা পৃষ্ঠপোষকদের হাতে ক্লাবের দায়িত্ব তুলে দেন। তাদের হাত ধরেই ক্লাবে প্রবেশ করে বেটিং, পাতানো খেলা। তাদের মধ্যে অন্যতম এম স্পোর্টসের স্বত্বাধিকারী মিনহাজুল ইসলাম। তার সঙ্গে যুক্ত হয় সাবেক টিম ম্যানেজার গওহর জাহাঙ্গীর রুশো, সাবেক ফিটনেস ট্রেনার ভারতীয় নাগরিক মাইদুল ইসলাম শেখ এবং সাবেক টিম সহকারি ম্যানেজার আরিফ হোসেন। তাদের চারজনকে আজীবন নিষিদ্ধ করেছে বাফুফে।

[৬] বাফুফে আরামবাগের চারটি ম্যাচ ও ব্রাদার্সের কয়েকটি ম্যাচে স্পট ফিক্সিংয়ের সন্দেহ করেছিল। পাতানো খেলা শনাক্তকরণ কমিটি ব্রাদার্সের ম্যাচগুলোর সম্পৃক্ততা পায়নি। আরামবাগের ম্যাচগুলো নিয়ে তদন্ত শেষে রিপোর্টের ভিত্তিতে শাস্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিসিপ্লিনারি কমিটি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত