প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাড়ে ১২ লাখ টাকায় বিক্রি হলো ‘তৈমুর’

নিউজ ডেস্ক : আর মাত্র একদিন পর ঈদুল আজহা। তাই কুরবানির ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে পশুর হাট। বিভিন্ন দেশের ধর্মপ্রাণ মুসল্লির আল্লাহ তায়লার সন্তুষ্টি লাভের জন্য প্রতি বছর জিলহজ মাসের ১০ তারিখ পশু কুরবানি দিয়ে থাকে। এ বছর মঙ্গলবার (২০ জুলাই) সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা পালিত হচ্ছে। তবে বাংলাদেশ-ভারতসহ বিভিন্ন ঈদুল আজহা হবে বুধবার (২১ জুলাই)। খবর নিউজ এইটিনের।

এবারের ঈদে বিভিন্ন জাতের এবং ব্যতিক্রম নামের পশু নজর কেড়েছে। আর বুধবার ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে ভারতে একটি ছাগল বিক্রি হয়েছে ১১ লাখ রুপি বা ১২ লাখ ৪৪ হাজার টাকায়। ওই ছাগলটি কিনেছেন গুজরাটের সুরাটের একজন ব্যবসায়ী। ছাগলটির বিক্রেতা আসফাক জানিয়েছেন, এটি পাঞ্জাবের বিঠল প্রজাতির। নাম তৈমুর। বিঠল প্রজাতির বিশেষত্ব এদের উঁচু নাক হয়। আর আকৃতিতে বিশাল। তৈমুর যেমন উচ্চতায় ৪৬ ইঞ্চি। ওজন ১৯২ কেজি।

আসফাক সুরাটের সাগরামপুরার বাসিন্দা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ছাগলের ব্যবসা করেন। তার কথায়, কুরবানির জন্য প্রতি বছরই এই সময় চড়া দামে ছাগল বিক্রি হয়। এমনকি অনলাইনেও চলে বিক্রি। চড়া দামের কারণ অবশ্য একটাই। অসুস্থ বা আঘাত পাওয়া পশু কুরবানি দেয়া যায় না। স্বাভাবিকভাবেই ভালো ছাগল পেতে ভালো দামও দিতে হয় ক্রেতাকে।

এ বছর কাশ্মীর, কাঠিয়াওয়াড়ি জেটা, কোটা, সিরোনসহ নানা প্রজাতির ছাগল ছিল আসফাকের কাছে। সবগুলোই বিক্রি হয়েছে ভালো দামে। তবে সবচেয়ে বেশি লাভ হয়েছে পাঞ্জাবের বিঠল প্রজাতির তৈমুর বিক্রি করে। নাকের অদ্ভুত আকৃতির জন্যই ক্রেতাদের কাছে এই প্রজাতির বেশি কদর বলে জানান তিনি। বুধবার ঈদের দিনই কুরবানি দেয়া হবে তৈমুরকে। আসফাক জানিয়েছেন, ১১ লাখ রুপিতে বিক্রি হওয়া ছাগলটিকে পুরোদস্তুর সাজিয়ে ক্রেতার কাছে পাঠিয়েছেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত