প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পাথরঘাটার ৩ ইউপিতে ভোট চলছে প্রতিটি ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থীর লড়াইয়ের সম্ভাবনা

অমল তালুকদার: [২] পাথরঘাটার ৩ ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহণ চলছে । ৫ নং কালমেঘা ৬ নং কাকচিড়া ৭ নং কাঠালতলী এই তিনটি ইউপি নির্বাচনে আজ ভোট যুদ্ধ। ৩টি ইউপিতে ৫৪ হাজার ৪’শ ৮৭ জন ভোটার তাদের ভোট প্রয়োগ করবেন বলে আশা করছেন এলাকাবাসী। এরমধ্যে কালমেঘা ইউনিয়নে পুরুষ ১০হাজার ২’শ ৮৯ এবং মহিলা ১০হাজার ৪’শ৭০। কাকচিড়া ইউনিয়নে পুরুষ ৮হাজার ৪’শ৭৪ এবং মহিলা ৮হাজার ৪’শ ৪৪ভোট।

[৩] কাঠালতলী ইউনিয়নে পুরুষ ৮হাজার ২’শ ৫০ এবং মহিলা ৮হাজার ৪’শ৫৯ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। আষাঢ়ের অঝোড় বর্ষণে উত্তাপহীন এই ইউপি নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত চরম উত্তেজনা,অস্ত্র, প্রভাব-বেশি শক্তি সকল কিছুরই ব্যবহার হলো।সকাল থেকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ।গুরুগুরু বৃষ্টি হচ্ছে। প্রকৃতি অন্ধকারের চাদড়ে ঢাকা। পাথরঘাটার চা স্টল হতে শুরু করে সর্বত্র এই তিনটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আলোচনার ঝড় বইছে।

[৪] ৫ নং কালমেঘার বর্তমান চেয়ারম্যান আকন মোঃ সহিদ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পাওয়ায় তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাড়িয়েছেন। সেখানে নৌকার টিকিট নিয়ে নির্বাচন করছেন মরহুম সাবেক সাংসদ গোলাম সবুর টুলুর আপন ভাই মো.গোলাম নাসির । তার নৌকার সাথে পাল্লা দিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক তিনবারের চেয়ারম্যান এবং সাবেক সাংসদ গোলাম সরোয়ার হিরুর সহধর্মিনী নূর আফরোজ হ্যাপি রয়েছেন মাঠে।

[৫] নূর আফরোজ হেপি সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেছেন, তাকে মাঠে নামতে দেয়া হচ্ছে না তার প্রচার মাইক কেড়ে নেয়া হচ্ছে। পোস্টার লাগাতে দেয়া হচ্ছে না। এমন অভিযোগ ছিল বরাবরই। কিন্তু এমন অভিযোগ কে উড়িয়ে দিচ্ছেন নৌকার প্রার্থী গোলাম নাসির। সব মিলিয়ে তিনটি ইউনিয়নের মধ্যে কালমেঘায় তেমন কোনো রক্তারক্তি কিংবা তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

[৬] ৬নং কাকচিড়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন পল্টু নৌকার টিকিট পেয়ে মাঠে শুরু থেকেই সরব রয়েছেন। ওই ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী সতন্ত্র প্রার্থী শাজাহান পাহলান ঘোড়া মার্কা নিয়ে শুরু থেকে মাঠে সক্রিয় ছিলেন। এখানে অস্ত্র সহ একজনকে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া সহ নির্বাচনী সংঘর্ষে রক্তাক্ত জখম হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন। এখানে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে আলাউদ্দিন পল্টুর নৌকা মার্কা এবং বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজাহানের ঘোড়া মার্কার সঙ্গে।

[৭] ৭নং কাঠালতলী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম আবারো নৌকার টিকিট পেয়েছেন। বিএনপি এই নির্বাচনে না আসলেও এখানে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী শহীদ পরিবারের সন্তান হাবিবুর রহমান সতন্ত্র হয়ে ঘোড়া মার্কা নিয়ে নৌকার সঙ্গে লড়ছেন। এখানেও মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে শহিদুল ইসলামের নৌকা মার্কা এবং হাবিবুর রহমানের ঘোড়া মার্কার সঙ্গে।

[৮] তিনটি ইউনিয়নের জনগণের পাশাপাশি পুরো উপজেলাবাসী তাকিয়ে আছেন কেমন নির্বাচন হয় এবং তার ফলাফল কি হয় সেটি জানার জন্য। সকলের প্রশ্ন ভোট নির্বিঘ্ন হবে কিনা? যদি হয় তাহলে ফলাফল এক রকম হতে পারে এবং যদি প্রভাব বেশি শক্তি ব্যবহার করা যায় তাহলে ফলাফল অন্য আর এক রকম হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন সচেতন মহল। সবমিলিয়ে একথা স্পষ্ট যে কাকচিড়া ইউনিয়নে নৌকা মার্কার আলাউদ্দিন পল্টুর সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাজাহান পাহলানের সঙ্গে মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে ।

[৯] কাঠালতলী ইউনিয়নে শহিদুল ইসলামের নৌকা মার্কার সঙ্গে হাবিবুর রহমানের ঘোড়া মার্কার প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে ।কালমেঘা ইউনিয়নে গোলাম নাসিরের নৌকা মার্কার সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোটরসাইকেল মার্কার নূর আফরোজ হ্যাপির সঙ্গে প্রতিদ্বন্দিতা হবে এবিষয়টি ভোটার মাত্রেই এখন সকলের ধারনা হয়েগেছে।এই ৩ টি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র সহ সর্বমোট ২২ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়াও ইউপি সদস্য পদে একাধিক প্রার্থী রয়েছেন প্রতিটি ওয়ার্ডে। সবকিছুর ফয়সালা হবে ভোট শেষে। সবাই সকাল থেকে সেই প্রত্যাশায় আছে।

 

সর্বাধিক পঠিত