প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কোভিডে অনাথ শিশু ও পরিবারের একমাত্র উপজর্নক্ষম মৃত ব্যক্তির পরিবারের দায়িত্ব নেবে ভারত সরকার

লিহান লিমা: [২] করোনায় পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তির মৃত্যু হলে ওই পরিবারের দায়িত্ব নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। পরিবারগুলোকে পেনশনের আওতায় আনা ছাড়াও উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে। সেই সঙ্গে বাবা-মা হারানো ১৮ বছরের কম বয়সী শিশুদের দায়িত্ব নেয়া হবে। দ্য হিন্দু

[৩]ফ্যামিলি পেনশনের আওতায় উপার্জনক্ষম ব্যক্তির মৃত্যু হলে তার পরিবার ওই ব্যক্তির দৈনন্দিন আয়ের অন্তত ৯০ভাগ পেনশন পাবে। এছাড়াও আমানত-সংযুক্ত বীমা প্রকল্পের আওতায় বীমার সুবিধাগুলি বাড়ানোর ঘোষণা করা হয়। সর্বাধিক বীমার সুবিধা ৬ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৭ লাখ রুপি করা হয়েছে। ২৪ মার্চ ২০২০ থেকে ২৪ মার্চ ২০২২-এর মধ্যেই এই কোভিড পেনশন প্রকল্প কার্যকর হবে।

[৪] পিএম কেয়ার্স ফান্ডের আওতায় কোভিডে অনাথ হওয়া শিশুদের বিনামূল্যে শিক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত বছরে ৫ লাখ রুপি স্বাস্থ্যবিমার সুবিধা তারা পাবে। ১৮ বছর বয়সের পর উচ্চশিক্ষার জন্য তারা আগামী ৫ বছরের জন্য বৃত্তি পাবে। ২৩ বছর বয়স হয়ে গেলে তারা পাবে এককালীন ১০ লাখ টাকা।

[৫] এর আগে সুপ্রিমকোর্ট করোনায় অনাথ হওয়া শিশুদের পাশে দাঁড়াতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে নির্দেশ দেয়।সম্প্রতি এক পরিসংখ্যানে জানা গিয়েছে, চলতি বছরের পয়লা এপ্রিল থেকে ২৫ মে-র মধ্যে করোনায় ৫৭৭জন শিশু বাবা-মা দু’জনকেই হারিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত