প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]ওয়ার্নারের রেকর্ডময় ম্যাচ সহজে জিতলো চেন্নাই

রাহুল রাজ : [২]টি-টোয়েন্টিতে ১০ হাজার রান, আইপিএলে দুইশ ছক্কা, ৫০তম ফিফটি ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে চার হাজার রান- এত সব রেকর্ড গড়ার আর মাইলফলক ছোঁয়ার দিনটা স্মরণীয় হলো না ডেভিড ওয়ার্নারের। তাদের দেওয়া ১৭২ রানের লক্ষ্য হেসেখেলে পূরণ করেছে চেন্নাই সুপার কিংস। ৭ উইকেটে এই আসরের টানা পঞ্চম জয় পেলেন মহেন্দ্র সিং ধোনিরা, তাও ৯ বল হাতে রেখেই।

[৩]এই জয়ে ৬ ম্যাচ শেষে আবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে টপকে শীর্ষে চেন্নাই। দুই দলের সমান ১০ পয়েন্ট, নেট রান রেট ব্যবধান গড়ে দিয়েছে দুই দলের অবস্থান। আর হায়দরাবাদ ২ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে।
[৪]লক্ষ্যটা চ্যালেঞ্জিং ছিল। কিন্তু রুতুরাজ গায়কোয়াড় ও ফাফ দু প্লেসির শতাধিক রানের উদ্বোধনী জুটি সহজ জয়ের ভিত গড়ে দেয়। যদিও ১৯ রানে চেন্নাইয়ের তিন উইকেট নিয়ে ছন্দপতন ঘটায় হায়দরাবাদ। তবে তা সহজ জয়ে বাধা হতে পারেনি। সুরেশ রায়না ও রবীন্দ্র জাদেজার ২৫ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ১৮.৩ ওভারে ৩ উইকেটে ১৭৩ রান করে তিনবারের চ্যাম্পিয়নরা।
[৫]রুতুরাজ ও দু প্লেসির জুটি ছিল ১২৯ রানে। মাত্র ৬৬ বলে তারা স্কোরবোর্ডে ১০০ রান তোলেন। ৩৬ বলে হাফ সেঞ্চুরি করা রুতুরাজ ৪৪ বলে ১২ চারে ৭৫ রান করে রশিদ খানের শিকার হন। আফগান লেগস্পিনার পরের ওভারে আরও দুটি উইকেট নেন। ৩৮ বলে ৫৬ রানে রশিদের কাছে এলবিডাব্লিউ হন দু প্লেসি, ১৫ রান করে মাঠ ছাড়েন মঈন আলী।
[৬]জয়ের বাকি কাজ সারেন জাদেজা ও রায়না। ৭ রানে জাদেজা ও ১৭ রানে রায়না অপরাজিত ছিলেন।
[৭]এর আগে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতায় আবারও জ্বলে উঠলেন হায়দরাবাদের ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন। চেন্নাইয়ের বিপক্ষে ওয়ার্নার ও মানীষ পান্ডের হাফ সেঞ্চুরির পর তার ব্যাটিং ঝড়ে ৩ উইকেটে ১৭১ রান করে হায়দরাবাদ।
[৮]দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় হায়দরাবাদ। দলীয় ২২ রানে জনি বেয়ারস্টো (৭) আউট হওয়ার পর ওয়ার্নার ও মানীষ শতাধিক রানের জুটি গড়েন। যদিও রানের গতি তেমন ছিল না। ৫০ বলে হাফ সেঞ্চুরি করেন ওয়ার্নার, তার আগে ৩৫ বলে ফিফটি উদযাপন করেন মানীষ।
[৯]আইপিএলে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ৫০তম ফিফটি হাঁকানোর পথে টি-টোয়েন্টিতে ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন ওয়ার্নার। ১৮তম ওভারে তাকে ফিরিয়ে ১০৬ রানের জুটি ভাঙেন লুঙ্গি এনগিডি। একই ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার ফেরান ইনিংস সেরা পারফর্মার মানীষকে। ৫৫ বলে ৩ চার ও ২ ছয়ে ৫৭ রান করেন ওয়ার্নার। মানীষের ৬১ রান আসে ৪৬ বলে, ৫ চার ও ১ ছয়ে।
[১০]এরপর শেষ ১৩ বলে স্কোরবোর্ডে ৩৭ রান যোগ করেন উইলিয়ামসন। কেদার যাদব ছিলেন অন্য প্রান্তে। কিউই ব্যাটসম্যান ১৯তম ওভারে তিন চার ও একটি ছয় হাঁকান, আসে ২০ রান। শেষ দুই বলে কেদার একটি চার ও ছয় মারেন। ১০ বলে ২৬ রানে উইলিয়ামসন আর কেদার ৪ বল খেলে ১২ রানে অপরাজিত ছিলেন।
[১১]২ উইকেট নিয়ে চেন্নাইয়ের সফল বোলার এনগিডি।

সর্বাধিক পঠিত