প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সকল বাধা পেরিয়ে হুমায়রা ফারাহ পাকিস্তানের প্রথম নারী আম্পায়ার

স্পোর্টস ডেস্ক: [২] পাকিস্তানের প্রথম নারী আম্পায়ারের নাম হুমায়রা ফারাহ। প্রথম দিকে নারীরা আম্পায়ার হতে পারবে না, এমন একটি ধারণা ছিল। তবে চ্যালেঞ্জ নিয়ে এই দায়িত্ব পালন করা শুরু করেন তিনি।

[৩] ক্যারিয়ারে ১৭০টি ম্যাচে আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্বপালন করা এই নারীর জন্ম লাহোরে। কলেজে থাকাকালীন হকি খেলার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। খেলেছেন পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়েও।

[৪] বড় ভাই হুমায়রাকে পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ে স্পোর্টস সায়েন্সের ভর্তি করিয়ে দেন। পড়া শেষ করে লাহোরের গ্যারিসন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্পোর্টস বিভাগে কাজ শুরু করেন। ২৮ বছর বিশ্ববিদ্যালয়টিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্পোর্টস ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করছেন।

[৫] ২০০৫ সালে আম্পায়ার হওয়ার প্রাথমিক কোর্স করেন। প্রথম নারী হিসেবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্যানেল ওয়ান ও টু কোর্সে পাস করেন। একই বছর আম্পায়ার হিসেবে অভিষেক হয় তার। প্রথমবারের মতো এই পেশায় জড়িত হই। শুরুতে মানুষ নানা কথা বলতে থাকে। লম্বা সময়ের জন্য মাঠের দায়িত্ব পালন করতে হবে। নারী হওয়ার কারণে আমাকে নিরুৎসাহিত করা হয়। যদিও আমি চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে সফল হই।

[৬] পাকিস্তানের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলার নাম ক্রিকেট। যদিও ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের অংশ গ্রহণ খুবই কম। ২৫ বছর আগে নারী ক্রিকেট দল গঠন করা হলে রক্ষণশীলরা বেশ সমালোচনা শুরু করে। বর্তমানে বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে সপ্তম স্থানে অবস্থান করছে দেশটির নারী দল।

[৭] পেশাদার আম্পায়ার হয়েও নিজের পরিবারকে সময় দিয়েছেন সব সময়। নিয়মিত ঘরের কাজও করতেন। একমাত্র ছেলেকে উচ্চ শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলেছেন। হুমায়রা ফারাহ বলেন, আমার মা আমাকে যেমন শিক্ষা দিয়েছেন চেষ্টা করেছি ছেলেকেও তেমন করেই বড় করতে। বর্তমানে আমার ছেলে একজন ক্যামিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। – আরটিভি/ ক্রিকেট পাকিস্তান

সর্বাধিক পঠিত