প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোদির অসম ভ্যাকসিন নীতির কড়া সমালোচনায় সোনিয়া, মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে নতুন নীতি ঘোষণা করেছেন। সেই নীতি অনুযায়ী ১৮ বছরের বেশি বয়সি সবাই ভ্যাকসিন নিতে পারবেন। ঘোষণা দেওয়ার পাশাপাশি ভ্যাকসিনের মূল্যেও কিছু রদবদল করা হয়েছে।

ভ্যাকসিন উৎপাদক প্রতিষ্ঠানগুলো জানিয়েছে, ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ভ্যাকসিন কিনবে প্রতি ডোজ ১৫০ রুপিতে। কিন্তু রাজ্য সরকারকে ৪০০ রুপিতে আর বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে ৬০০ রুপিতে কিনতে হবে। এই ভিন্ন নীতির প্রতিবাদে সরব হয়েছেন জাতীয় কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। দুই জনই দাবি তুলেছেন অভিন্ন মূল্যে ভ্যাকসিন বিতরণের জন্য।

মমতা ব্যানার্জি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন যে, প্রতিটি ভারতীয় নাগরিকেরই বিনা মূল্যে টিকা প্রয়োজন। তাই ৫ মে থেকে পশ্চিমবঙ্গের ১৮ বছরের বেশি বয়সি নাগরিককে বিনা মূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। তিনি বলেন, নির্বাচন চলছে, তাই ১ মে থেকে কার্যক্রম শুরু করা যাচ্ছে না। এ জন্য আমি দুঃখিত। পাশাপাশি মালদা জেলার নির্বাচনি জনসভায় মমতা বলেন, ?কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি করছেন নরেন্দ্র মোদি।

এর আগে জাতীয় কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি চিঠি লেখেন। সেখানে তিনি নতুন ভ্যাকসিন নীতিকে বৈষম্যমূলক এবং এই সিদ্ধান্তকে স্বেচ্ছাচারী বলে মন্তব্য করেন। এই নীতি মহামারিতে আক্রান্ত সাধারণ মানুষের দুর্দশা আরো বাড়িয়ে তুলবে বলে জানান। তিনি বলেন, আমাদের দেশের নাগরিকদের ওপর যে ঝড় নেমে এসেছে, তারপর এই স্বেচ্ছাচারী ও বৈষম্যমূলক নীতি অনুসরণ করে সংকট আরো বাড়িয়ে তোলা হয়েছে। নতুন ভ্যাকসিন নীতি থেকেই বোঝা যাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার ১৮ থেকে ৪৫ বছর বয়সের মধ্যে সব ভারতীয়কে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন সরবরাহের দায়িত্ব থেকে সরে আসতে চাইছে। ভারত সরকারের ত্রুটিযুক্ত নীতির কারণে ভ্যাকসিন নির্মাতা সিরাম ইনস্টিটিউট পৃথক মূল্য নির্ধারণের ব্যবস্থা ঘোষণা করেছে। সোনিয়া গান্ধী বলেন, ভারতের নাগরিকরা এই টিকা দেওয়ার জন্য উচ্চ হারে অর্থ প্রদান করতে বাধ্য হবে। রাজ্য সরকাগুলোরও বাড়তি অর্থ খরচ হবে।

মমতা প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া চিঠিতে বলেন, ?ভারত সরকার এবং রাজ্যগুলোর জন্য ভ্যাকসিনের দামে পার্থক্য কেন? উত্পাদক প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ভারত সরকার প্রতিটি ১৫০ রুপি দরে কিনছে। কিন্তু রাজ্যগুলোর জন্য নির্ধারিত দাম ৪০০ রুপি! তার আগে টুইটারে মমতা লেখেন, এক দেশ, এক দল, এক নেতৃত্বের কথা বলে বিজেপি। কিন্তু জীবন বাঁচাতে এক দরে টিকা দিতে পারে না। প্রতিটি ভারতীয়র বিনা মূল্যে টিকা প্রয়োজন। বয়স, জাতি, গোষ্ঠী, ভৌগোলিক এলাকা নির্বিশেষে টিকার একটিই দাম নির্ধারণ করা উচিত। রাজ্য ও কেন্দ্রের জন্য দুটি আলাদা দর হওয়া উচিত নয়। গতকাল মালদায় এক জনসভায় মমতা বলেন, আমরা ভারত সরকারের কাছে আরো ১ কোটি করোনার ভ্যাকসিন চেয়েছি। কিন্তু এখনো পাইনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত