প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুধের জন্য ভোর রাতে স্ত্রীকে খুন

ডেস্ক রিপোর্ট: রাজবাড়ীতে সেহরিতে দুধের সর খাওয়া নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে স্ত্রী সুরাইয়াকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী মশিউর রহমান মিটুলের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের চর শ্যামনগরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সুরাইয়া ওই উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের বড় ভবানীপুরের দেওয়ান মো. রফিকুল ইসলামের মেয়ে।

এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে হত্যা মামলা করেছেন নিহতের বড়ভাই দেওয়ান মো. সৌরভ। আসামিরা হলেন- সুরাইয়ার স্বামী মশিউর রহমান মিটুল, দেবর নাইম মণ্ডল, জা সাদিয়া বেগম, ভাসুর হাতেম মণ্ডল ও শাশুড়ি সাহেরা বেগমসহ অজ্ঞাত আরো ৩-৪ জন।

দেওয়ান মো. সৌরভ বলেন, ২০১৪ সালে চর শ্যামনগরের মশিউর রহমান মিটুলের সঙ্গে আমার বোন সুরাইয়া সুলতানা তমিসরার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই মিটুল ও তার পরিবার সামান্য বিষয় নিয়ে আমার বোনের ওপর শারীরিক নির্যাতন চালাত। বিষয়গুলো আমার বোন বাড়িতে এসে আমাদের কাছে বলত। মঙ্গলবার সকালে মিটুল আমার বাবাকে কল করে জানায় আমার বোন নাকি আত্মহত্যা করেছে। আমরা দ্রুত গিয়ে দেখি আমার বোনের লাশ বারান্দায় শুইয়ে রাখা হয়েছে। গলায় ফাঁস নেয়ার কোনো চিহ্ন নেই। আমার বোনের থুতনিতে, নাকে, ঘাড়ে ও হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আশপাশের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি- সোমবার ভোর রাতে সেহরিতে দুধের সর খাওয়া নিয়ে আমার বোনের সঙ্গে তার শাশুড়ি সাহেরা বেগমের কথা কাটাকাটি হয়। বিষয়টি সাহেরা বেগম পরিবারের অন্যদের জানালে তারা সবাই মিলে আমার বোনকে হত্যার পরিকল্পনা করে। মঙ্গলবার ভোর রাতে হত্যার ঘটনাটি ভিন্ন দিকে নেয়ার জন্য তারা আত্মহত্যার নাটক সাজায়।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সুরতহাল প্রতিবেদন ও আশপাশের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে এটা পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড।

ওসি আরো বলেন, এ ঘটনায় নিহতের স্বামী-শাশুড়িসহ পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত