প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দীপু মাহমুদ: করোনা পেশেন্টের এখন আর স্যোসাল বা মেডিকেল স্ট্যাটাস নেই!

দীপু মাহমুদ: সেই দিন আর নেই। অবস্থা অতিরিক্ত খারাপ। কোভিড পজিটিভ পেশেন্টের স্ট্যাটাস কমে এখন একেবারে তলানির নিচে গিয়ে ঠেকেছে। এটা বুঝলাম হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে গিয়ে। বনেদী ভেবে বেশ উচ্চস্বরে আওয়াজ দিলাম, ‘আমার করোনা পজিটিভ।’ না নার্স, না ডাক্তার, কেউ ব্যাপারটা বিরাট আওয়াজ দেওয়ার মতো কৌলিন্যের আমলে নিলেন না। তাঁরা অতি স্বাভাবিক আচরণ করলেন। আমাকে কী করতে হবে বুঝিয়ে দিলেন।

কাহিনি বুঝতে পারলাম না। কেউ গ্রাহ্য করছে না কেন! এতো বড় ঘটনা। তখন খেয়াল করলাম আমার আশপাশে ৩৩ জন করোনা পজিটিভ পেশেন্ট সারি সারি বন্ধনে আবদ্ধ। রাজনৈতিক আলোচনায় উত্তাল। এসব এখন মামুলি ব্যাপার। অকাতরে করোনা বিলাচ্ছে। এই যে প্রতিদিন করোনায় শতাধিক মানুষ মারা যাচ্ছে, হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে, এর উত্তেজনা অন্যরকম! দুহাত আকাশে ছুঁড়ে জানাচ্ছি, ‘আজ আমরা সেঞ্চুরি করেছি। দশ হাজার পার করেছি।’ তাই সেই উত্তেজনায় শামিল হতে উঠেপড়ে লেগে গেছি। নিয়ম-নিষেধ না মানার থ্রিল আমাদের সবসময় উত্তেজিত করে রাখে। নিয়ম ভাঙতে পারলে আমার মনের মুকুটে আরও একটি পালক যোগ হয়। আরও বেশি স্মার্ট হয়ে উঠি। লাভ কি যদি স্ট্যাটাসই না থাকে! তার চেয়ে করোনাকে আটকে দেওয়াই ভালো। তোকে আমি নিলাম না, যা ভাগ।

মোর‌্যাল অব দ্য কাহিনি: করোনা পেশেন্টের এখন আর স্যোসাল বা মেডিকেল স্ট্যাটাস নেই। তাই আপ্রাণ চেষ্টা করুন নিজের বা নিজের উদাসীনতার জন্য পাশের কেউ যেন করোনা আক্রান্ত না হয়। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর কষ্টের মাত্রা হয় অতি তীব্র। ভয়াবহ। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত