প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] খালেদা জিয়ার কোভিড পজিটিভ হলেও তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল: মির্জা ফখরুল

শিমুল মাহমুদ/সারোয়ার জাহান: [২] বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া করোনা পজিটিভ বলে নিশ্চিত করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

[৩] রোববার (এপ্রিল ১১) বিকাল সাড়ে ৪টার পরে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, খালেদা জিয়া শারীরিকভাবে ভালো আছেন। শনিবার আইসিডিডিআরবিতে পরীক্ষায় দেশনেত্রীর করোনা পজিটিভ আসে। আমরা তার সুস্থতার জন্য দেশবাসী ও দলীয় নেতাকর্মীদের দোয়া করার আহ্বান জানাচ্ছি।

[৪] তিনি আরও বলেন, এখন তার সর্বশেষ যে পরিস্থিতি প্রফেসর ডা. এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে তার ব্যক্তিগত চিকিতসক যারা আছেন তাদের তত্ত্বাবধায়ননে ইতিমধ্যে চিকিতসা শুরু হয়েছে। তিনি এখন স্টেবল আছেন, ভালো আছেন। মির্জা ফখরুল বলেন, ‘ তার কোনো টেম্পারেচার নেই, অন্য কোনো উপসর্গও তার নেই।

[৫] ‘তার চিকিতসা ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। আমরা দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই, তার ব্যক্তিগত চিকিতসক যারা আছেন তারা দেশের অত্যন্ত বরণ্যে চিকিতসক তাদের তত্ত্বাবধায়নে আছেন এবং তিনি ভালো আছেন।

[৬] তিনি জানান, তার চিকিতসকদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। অর্থাত যদি কোনো প্রয়োজন হয় তথন সেই ভাবেই ফারদার টিট্রমেন্টের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[৭] দলের একটি নির্ভর যোগ্য একটি সূত্রে জানা যায়, বেগম জিয়ার বাসায় বাজার করে দেওয়া কর্মীর প্রথমে করোনা পজেটিভ আসে এর তিন দিন পর তার পরিচর্যায় নিযুক্ত গৃহপরিচারিকা ফাতেমার করোনা শনাক্ত হয়। এরপর শনিবার (১০ এপ্রিল) দুই দফায় খালেদা জিয়ার নমুনা সংগ্রহ করা হলে পজেটিভ আসে।

[৮] রোববার বিকেলে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও তাঁর ভাগনে ডা. মামুন জানিয়েছেন, বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। শুধু তিনি নন, রাজধানী গুলশানের ‘ফিরোজা’ বাসভবনের যত বাসিন্দা আছেন, তারা সবাই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ওই বাসভবনে থেকে সবাই চিকিৎসা নিচ্ছেন।

[৯] দুপুরেই স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের বরাত দিয়ে স্থানীয় গনমাধ্যম জানাচ্ছিল খালেদা জিয়া কোভিড-১৯ আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এমনকি খালেদা জিয়ার করোনা পরীক্ষার একটি রিপোর্টের কপিও ছড়িয়ে পড়ে অনলাইনে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত