প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৪৪ বছর ধরে উল্টো মাথা নিয়ে চলছে ক্লাউডিওর

ডেস্ক রিপোর্ট: সুস্থ স্বাভাবিক শরীর ও জীবন কে না চায়! কিন্তু ভাগ্যের নির্মমতায় অনেকেই তা পান না। তাদের একজন ক্লাউডিও ভেইরা ডি অলিভেইরা। রাইজিংবিডি

ব্রাজিলের পূর্বাঞ্চলীয় বাহিয়া রাজ্যের বাসিন্দা তিনি। স্বাভাবিক মানুষের মতো মাথা থাকলেও জন্ম থেকেই উল্টো। এভাবেই চলছে ৪৪ বছর বয়সি ক্লাউডিওর বেঁচে থাকার সংগ্রাম।

জানা যায়, আর্থ্রোগ্রিপোসিস মাল্টিপ্লেক্স কনজেনিটাল ব্যাধিতে ভুগছেন তিনি। ফলে তার পায়ের পেশীতে পুষ্টির অভাব দেখা দিয়েছে। হাত দু’টি বুকের এবং মাথা উল্টোভাবে পিঠের সঙ্গে লেগে থাকে।

তবে এত প্রতিকূলতার মাঝেও দমে যাননি ক্লাউডিও। আর দশটা মানুষের মতো শিশুকাল থেকেই মায়ের কাছে লেখাপড়া শিখেছেন। নিজের পছন্দ মতো সব কাজ করেন তিনি।

নিজের এই অবস্থাকে অন্যের কাছে অনুপ্রেরণা হিসেবে তুলে ধরতে চান ক্লাউডিও। এজন্য তিনি একটি ডিভিডি তৈরি করেছেন। পাশাপাশি নিজের আত্মজীবনীও লিখেছেন। এখানেই শেষ নয়, ২০০০ সাল থেকে তিনি মোটিভেশনাল স্পিকার হিসেবে বিভিন্ন সেমিনারে বক্তব্য রাখেন।

করোনা মহামারির এই সময় বেশ সতর্ক তিনি। স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমে ক্লাউডিও বলেন, ‘আমার কখনো কোনো সমস্যা মনে হয়নি। আমি স্বাভাবিক জীবনযাপন করি। আমি সম্পূর্ণ কোয়ারেন্টাইনে আছি কারণ কোভিড খুবই ভয়ানক, মরণঘাতী। অনেক ভয়ে আছি। সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করে তিনি যেন এটি থেকে আমাকে রক্ষা করেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি যতটুকু পারছি সতর্ক থাকি। গত এক বছর ধরে আইসোলেশনে আছি। শুধু প্রয়োজনীয় কাজের জন্য বাইরে যাই। অনেক বছর বাঁচতে চাই।’

সর্বাধিক পঠিত