প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আদার ঔষধি গুণ

আতাউর অপু:  আদার ঔষধি গুণাগুণ সম্পর্কে আমরা খুব ভালো করেই অবগত। তাই সুপারফুডের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত এ মসলা। আদাতে রয়েছে ফাইবার, নানা ধরনের ভিটামিন, প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক এবং আরও বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় উপাদান যা শরীরের জন্য অনেক বেশি কার্যকরী।

আদার নানা গুণাগুণ থাকা সত্ত্বেও অনেকেই এর স্বাদ পছন্দ করেন না। কিন্তু তারপরেও কোনো না কোনোভাবে আদা খেতে হবে।

চলুন আদা খাওয়ার কয়েকটি কারণ জেনে নেই।

আদার অনেক ঝাঁজালো স্বাদ। তবে চায়ের সাথে এর মেলবন্ধন চমৎকার। সকাল বেলা শরীরকে চাঙ্গা করে তোলে আদা দিয়ে তৈরি এক কাপ চা। এই চা অনেক সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যকর।

মাঝে মাঝে প্রচণ্ড মাথা ব্যথা হয়। অনেকের মাইগ্রেনের সমস্যার কারণে মাথা ব্যথায় ভুগেন। কোনো ওষুধে খুব বেশি কাজ করে না। তখন আদা একটু তৃপ্তি দিতে পারে। আদা চিবিয়ে খেলে অথবা চা হিসেবে খেলেও একটু স্বস্তি আসে।

বয়স হওয়ার সাথে সাথে অনেকের জয়েন্ট পেইন হয়। হাঁটতে কষ্ট হয়, এমনকি বেশিক্ষণ বসে থাকাও যায় না। নিঃসন্দেহে একজন ডাক্তারের থেকে ভালো কাজ করবে এমন ওষুধ কেউ দিতে পারবে না। কিন্তু আদা ব্যথা কমাতে ভূমিকা রাখে।

মেয়েদের মাসিকের ব্যথার জন্য নানা ধরনের ওষুধ পাওয়া যায়। তবে অতিরিক্ত ওষুধ সেবন করা শরীরের জন্য ক্ষতিকারক। তাই মাঝে মাঝে ঘরোয়া কিছু টোটকা মেনে চলতে হয়। মাসিকের ব্যথা কমিয়ে দেয় আদা।

আদা সব থেকে বেশি পরিচিত অত্যন্ত প্রয়োজনীয় মসলা হিসেবে। মাংস রান্না আদা ছাড়া একদমই অসম্ভব। সকল মসলার মধ্যে আদার স্বাদ অনেক বেশি স্বাধীন। তাই খাবারে খুব বেশি পরিমাণে দিলে খাওয়ার অযোগ্য হয়ে যায়। তরকারিতে আদা ব্যবহারের ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে।

সর্বাধিক পঠিত