প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাজধানীতে প্রতিমাসে গড়ে ১৫ থেকে ২০টি খুনের ঘটনা ঘটে: ডিবির যুগ্ম কমিশনার

মাসুদ আলম: [২] সোমবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

[৩] তিনি বলেন, ফেব্রুয়ারিতে দুটি খুনের ঘটনা ঘটেছিল। একটি ১০ ফেব্রুয়ারি আরেকটি ১২ ফেব্রুয়ারি। গত ১০ ফেব্রুয়ারি কদমতলী থানার পূর্ব জুরাইনে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মো. জাকির হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়। একই ঘটনায় মজিবর রহমান ওরফে মোহন গুরুতর আহতন হন। এই ঘটনায় কদমতলী থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। এ ঘটনায় রাজধানীর ও আশপাশের এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশের ওয়ারী বিভাগ।

[৪] তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মো. শুক্কুর, নুরুল ইসলাম স্বপন, রতন ওরফে সোলাইমান ওরফে রোম্বে, শফিকুর রহমান ওরফে দিপু, ফাহিম হাসান তানভীর ওরফে লাদেন, তরিকুল ইসলাম ও মাসুদ পারভেজ। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে হত্যা, মাদক ও অস্ত্র মামলা রয়েছে। তারা চিহ্নিত অপরাধী।

[৫] যুগ্ম কমিশনার মাহবুবুর রহমান বলেন, রোববার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মুগদায় হাসান মিয়া হত্যাকাণ্ডে জড়িত ব্যান্ডেজ কিশোর গ্যাং গ্রুপের ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) মতিঝিল বিভাগ। সিনিয়রকে সালাম না দেওয়ায় তাকে হত্যা করা হয়েছে।

[৬] তিনি বলেন, গ্রেপ্তারকৃরতা হলো, তানভীর, রাতুল, ফাহিম, রতন, রিয়াদ, নিশাত ও আবু বক্কর সিদ্দিক। সবারই বয়স ১৬-১৭ বছরের মধ্যে। ঘটনার পরপরই এক কিশোরকে আটক করেছিল থানা পুলিশ। এই কিশোররা ‘ব্যান্ডেজ’ নামে গ্রুপ পরিচালনা করে। এরা সবাই সংঘবদ্ধ কিশোর অপরাধী দলে জড়িত।

[৭] তিনি আরো বলেন, মূলত সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে ব্যান্ডেজ গ্রুপের সদস্যরা হাসান মিয়াকে খুন করে। খুবই তুচ্ছ ঘটনায় এই খুনের ঘটনা।

[৫] শুক্রবার সন্ধ্যায় মান্ডার লেক তুষার শাহ আলমের গলিতে গ্রেপ্তারকৃতরা হাসানকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। সে একটি প্রিন্টিং প্রেসের কর্মচারী ছিলো। কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ভারারা গ্রামে তার বাড়ি। মান্ডা পরিবারের সঙ্গে থাকতো সে। তিন ভাই এক বোনের মধ্যে সে তৃতীয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত