প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] উচ্চশিক্ষায় আসন নয়, মানসম্মত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংকট রয়েছে: ড. মুহাম্মদ আলমগীর

শরীফ শাওন: [৩] দেশের উচ্চশিক্ষায় ভর্তির পর্যাপ্ত আসন সংখ্যা রয়েছে, তবে শিক্ষার্থীদের পছন্দ অনুযায়ী সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সীমিত আসন, বিশেষ করে বিষয়ভিত্তিক আসন সংখ্যা কম রয়েছে। উচ্চশিক্ষায় মানসম্পন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কম থাকায় এসকল প্রতিষ্ঠানে ভর্তির ক্ষেত্রে তীব্র প্রতিযোগিতা হবে।

[৪] বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য ড. মুহাম্মদ আলমগীর আরও বলেন, মানসম্মত প্রতিষ্ঠান গড়তে প্রয়োজন মানসম্মত শিক্ষক, সময়োপযোগী কালচার ও প্রোগাম। আর এসকল বিষয় নিয়মিত তদারকি করতে হয়। প্রতিষ্ঠানের মান নিয়ন্ত্রণকারী হিসেবে কমিশনের পাশাপাশি ২০১৭ সালে বাংলাদেশ এক্রিডিটেশন কাউন্সিল গঠিত হয়েছে। এ লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি, কোয়ালিটি রাতারাতি অর্জন সম্ভব নয়। এ সমস্যা শুধু আমাদের দেশে নয়, বরং উন্নয়শীল সকল দেশেই রয়েছে।

[৫] স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আলী নাকি বলেন, অটোপাস দেওয়া হলেও সরকারি বা বেসরকারি পর্যায়ে উচ্চশিক্ষায় ভর্তির ক্ষেত্রে মেধা যাচাইয়ে পরীক্ষা নেওয়া হবে। মেধাবী শিক্ষার্থীরাই ভালো বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় থাকবে।

[৬] তিনি বলেন, করোনাকালে শিক্ষা থেকে শিক্ষার্থীরা যেন ঝরে না পড়ে, সে লক্ষ্যে সরকারের অটোপাসের সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী। পড়াশোনায় উৎসাহ বাড়াতে সকলকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা পর্যন্ত তাদের অনলাইন পাঠদানে সংযুক্ত রাখতে হবে।

[৭] ইউজিসি জানিয়েছে, সারাদেশে উচ্চশিক্ষায় প্রায় ১৩ লাখ ২০ হাজার আসন রয়েছে। অটোপাসের ফলে ২০২০ সালের ১৩ লাখ ৬৭ হাজার ৩৭৭ জন পরীক্ষার্থীর সবাই ভর্তির সুযোগ পাচ্ছে।

সর্বাধিক পঠিত