প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ছেলের বিরুদ্ধে স্বাক্ষী দিল গর্ভধারিণী মা

শেখ সেকেন্দার আলী: [২] খুলনার পাইকগাছার রাড়ুলিতে দিনে দুপুরে দাদিকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার কথা স্বীকার করেছে নাতি ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ।

[৩] গতকাল পুলিশের কাছে জবানবন্ধীতে অতি সহজে দাদি নুরজাহানকে খুন করার কথা স্বীকার করে সে এবং তার মা ফাতেমা বেগমও ছেলের খুন করার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করে বলেন, তার ছেলে খুন করে পাপ করেছে।

[৪] পুলিশ জানায়, সোমবার দুপুরে ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ ডাব কাটছিল। দাদি রান্না ঘরে রান্না করছিল। সে পাশের বাড়ী থেকে দা চেয়ে আনে এবং রান্না ঘরে ঢুকে দাদির গলায় কোপ বসিয়ে দেয়। সেখানে দাদি নুজাহানের মৃত্যু হয়।

[৫] এঘটনায় ওসি এজাজ শফী ও ওসি তদন্ত ঘটনা স্থলে যান বিস্তারিত জেনে শুনে ইব্রাহিম, তার মা ফতেমা, বাবাকে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দিয়েছে।

[৬] খুনের বিষয় নিয়ে খুনীর মা ফতেমা বেগমও স্বীকার করে পুলিশকে বলেন, আমার ছেলে আমার শ্বাশুড়িকে হত্যা করেছে। খুন করার সময় ভয়ে তার কাছে আমি যেতে পারিনি। আমার ছেলে খুন করে অন্যায় করেছে।

[৭] ওসি এজাজ শফী জানান, ১৬৪ ধারা জবান বন্ধিতে রাড়ুলীর শ্রীকান্ঠুপুর বৃদ্ধা নুরজাহানকে তার নাতি (পুতা) ঠাণ্ডা মাথায় খুন করেছে।

সর্বাধিক পঠিত