প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নিজের দেশের বাতাসের ঘ্রাণ পেতে ৩০ ডলারে সুযোগ দিচ্ছে ব্রিটিশ কোম্পানি

রাশিদ রিয়াজ : কোভিডের নতুন বৈশিষ্ট্যের কারণে অন্তত ৪০টি দেশে ব্রিটেনের ফ্লাইট নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। অনেক ব্রিটিশ নাগরিক আটকা পড়েছেন বিদেশে। ব্রিটিশ প্রবাসীরা অনেকদিন ফিরতে পারছেন না দেশে। তারা দেশের কথা ভেবে কাতর হয়ে না পড়েন সেজন্যে বোতল ভর্তি বাতাস বিক্রির ব্যবস্থা করেছে ব্রিটিশ কোম্পানি। ব্রিটেনে ফিরতে না পারলেও অন্তত নিজের দেশের বাতাসের ঘ্রাণ নিতে খরচ করতে হবে ২৫ পাউন্ড বা ৩০ ডলার। ‘হোম সিক’ ব্রিটিশরা বিশে^র বিভিন্ন স্থানে আটকে থাকলেও ‘দুধের সাধ ঘোলে মেটানো’র মত বোতল খুলে বাতাসের ঘ্রাণ নিতে পারবেন। ‘মাই ব্যাগেজ’ নামে একটি ওয়েবসাইট এধরনের ‘স্পেশাল গিফ্ট’ অফার করে বলছে একেবারে তাজা বাতাসের ঘ্রাণ বোতলজাত করেছেন তারা। সিএনএন

ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, ওয়েলস এন্ড নর্দাণ আয়ারল্যান্ডের বাতাস ৫’শ মিলিলিটার বোতলে ভর্তি করা হয়েছে। বোতলের ছিপি খুলে কোনো ব্রিটিশ নাগরিক এসব এলাকার বাতাসের ঘ্রাণ নিতে পারবেন। আবার ওয়েলসের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলের পাহাড়ি এলাকার বাতাসের অর্ডার দিয়েছেন অনেকে। সীমিত সংখ্যক বোতল রয়েছে নরফক সহ বিশেষ বিশেষ যেমন লন্ডনের আন্ডারগ্রাউন্ড এলাকা, বিশেষ কোনো মাছ বা চিপ দোকানের ঘ্রাণ বোতলজাত করা আছে। মাই ব্যাগেজ কোম্পানির টিম বিভিন্ন এলাকার বাতাস অর্ডার অনুযায়ী সংগ্রহ করে সরবরাহ করবে। কারো কোনো আবেগপূর্ণ স্মরণীয় ঘটনা, গবেষণার প্রয়োজনে বা ঘ্রাণের জন্যে হলে এমন ধরনের বোতল সংগ্রহ করতে চাইবেন বলে কোম্পানিটি মনে করছে। কোম্পানির মুখপাত্র বলেন, আমরা চাই যারা ব্রিটেনের বাইরে অবস্থান করছেন তাদের সঙ্গে নিজ এলাকা বা তার বাড়ির সঙ্গে একটা সংযোগ স্থাপন করিয়ে দিতে। এটা আবেগের ব্যাপারও বটে। তারা নিজ এলাকার বাতাসে গভীর ঘ্রাণ নিতে পারবেন দেশে না ফিরেও। তাদের প্রবাসী জীবনে দেশের প্রতি কাতরতা অনেকটা সহজ হয়ে যাবে। এখন পর্যন্ত এধরনের বোতল যারা কিনতে অর্ডার দিয়েছেন তারা তা বন্ধু, বিদেশে থাকে এমন পরিবারদের গিফ্ট হিসেবে দেয়ার জন্যে কিনছেন।

ব্রিটেনে এধরনের বোতলজাত বাতাস বিক্রি এই প্রথম নয়। চার বছর আগে চীনের ‘এইথায়ের’ কোম্পানি বেইজিং ও সাংহাই এলাকার বাতাস বোতলজাত (৫৮০ মিলিলিটার) করে ১১৫ ডলারে বিক্রি শুরু করে। এর আগে কানাডার আরেক কোম্পানি ভাইটালিটি এয়ার পাহাড়ি এলাকার বাতাস বোতলজাত করে বিক্রি শুরু করে ৫২.৯৯ ডলারে। এ কোম্পানিটি ৮ লিটারের দুইটি বোতলজাত বাতাস বিক্রি করে। এছাড়া সুইজারল্যান্ডের সুইসব্রিজ নামে আরে কোম্পানি পাহাড়ি এলাকার বাতাস ৮ লিটারের বোতলে ভরে বিক্রি করে ২০ ডলারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত