প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পিরোজপুরে যুবদলের কর্মীসভায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের হামলায় আহত ২১

জুলফিকার আমীন : [২] মঙ্গলবার দুপুরে যুবদলের কর্মী সভায় বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে উস্কানী মূলক বক্তব্য এবং শতবর্ষ পালনে ক্ষণ গণনার বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ভাংচুরের প্রতিবাদে যুবদলের কর্মী সভায় হামলা চালিয়ে ওই সভা পন্ড করে দিয়েছে বিক্ষুব্দ যুবলীগ ও ছাত্রলীগ কর্মীরা। এতে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. রুহুল আমিন দুলালসহ অন্তঃত ১৫ জন যুবদল, ছাত্রদল ও যুবলীগ, ছাত্রলীগের ৬ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

[৩] হামলার সময় সাংবাদিকের মটর সাইকেলসহ ৮/১০ টি সাইকেল ভাংচূর করা হয়। এ ঘটনায় পৌর শহরে উত্তেজনা বিরাজ করছে। বড় ধরনের সংঘর্ষ এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

[৪] এদিকে বিকেলে উস্কানীমূলক বক্তব্য ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ভাংচুরের প্রতিবাদে উপজেলা আ’লীগ আজ মঙ্গলবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করে ঘটনার নিন্দা ও জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন।

[৫] অপরদিকে, উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মো. রুহুল আমিন দুলাল জানান, দুপুরে আমার বাসার সামনে যুবদলের শান্তিপূর্ণ কর্মী সভার আয়োজন করা হয়। এতে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে আমি, জেলা বিএনপির বিশেষ সম্পাদক কেএম হুমায়ূন, যুবদলের আহবায়ক মাসুম বিল্লাহসহ ১৫ জন আহত হয়।

[৬] উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আ‘লীগ সদস্য রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ জানান, যুবদলের কর্মী সভায় মাইক বাজিয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য, আ‘লীগ ও প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে উস্কানী মূলক বক্তব্য দেয়। এসময় যুবলীগ কর্মিরা প্রতিবাদ করলে যুবদল ও ছাত্রদল সন্ত্রাসীরা যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাদের ওপর হামলা চালায়।

[৭] এদিকে, বিকেলে উপজেলা আ’লীগের উদ্যোগে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি রফিউদ্দিন আহমেদ ফেরদৌস, উপজেলা চেয়ারম্যান মো: রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এমাদুল হক খান, বীরমুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা শাহ আলম দুলাল, বীরমুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম জালাল, আরিফ উল-হক, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান সিফাত প্রমুখ।

[৮] পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর দপ্তর) কাজী শাহ নেওয়াজ জানান, শহরে সকল সহিংষতা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

[৯] মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামান মিলু জানান, শহরের পরিস্থিতি শান্ত। কোন পক্ষই লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত