প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ম্যাজিস্ট্রেট, সাংবাদিক ও পুলিশ পরিচয়দানকারী ৪ প্রতারক গ্রেপ্তার

আরিফুল ইসলাম: [২] ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে জজ ও চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও সাংবাদিক পরিচয় দানকারী প্রতারণা চক্রের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছেন পুলিশ সদস্যরা।

[৩] সরাইল থানার ওসি আল মামুন মুহাম্মদ নাজমুল আহমেদ জানান, বুধবার দুপুরের পর সরাইল সদরের উচালিয়াপাড়া মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের চার সদস্যকে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত একটি বিলাসবহুল গাড়ী, পুলিশের সিগন্যাল লাইট, ওয়াকিটকি ওয়ারলেস সেট, বিশেষ জজ এবং জেলা ও দায়রা জজ লেখা স্টিকার, পুলিশ লেখা স্টিকার, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার মনোগ্রাম যুক্ত স্টিকার এবং সাংবাদিক ও প্রেস লেখা স্টিকার জব্দ করে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- চাঁদপুর জেলার ফরিদপুর উপজেলার লারুয়া গ্রামের মৃত ইসমাইল মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম (৩৮), বরগুনা জেলা সদরের মৃত কাশেম আলীর ছেলে লিটন মিয়া (২৮), সরাইল উপজেলার শাহাজাদাপুর ইউনিয়নের দেওড়া গ্রামের মৃত তোয়াজ উদ্দিনের ছেলে মিজান মিয়া (৩২) এবং দেওড়া গ্রামের বাগ বাড়িয়া’র নুর মিয়ার ছেলে জহির মিয়া (৪০)।

পুলিশ সূত্র জানায়, সরাইল সার্কেল-এর সহকারী পুলিশ সুপার আনিছুর রহমানের দিকনির্দেশনায় ওসি নাজমুল আহমেদের নেতৃত্বে এসআই জাহাঙ্গীর আলম সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে অভিযান চালিয়ে এই চার প্রতারক’কে গ্রেফতার করেন। আটককৃতরা কখনো ম্যাজিস্ট্রেট, কখনো সাংবাদিক, কখনো পুলিশ, কখনো জেলা দায়রা জজ পরিচয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে সরাইল থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে।

সরাইল সার্কেল-এর সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আনিছুর রহমান বুধবার রাতে জানান, এই প্রতারক চক্রটি দীর্ঘদিন যাবত সরাইল উপজেলার আশপাশের এলাকায় এবং ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে বিভিন্ন যানবাহনে প্রতারণা ও জালিয়াতি করে আসছিল। বিষয়টি আমরা অবগত হওয়ার পর থেকে চক্রটির ব্যাপারে সতর্ক হই ও এই প্রতারক চক্রটিকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনতে আমরা কাজ শুরু করি।অবশেষে আমরা একাজে সফল হই।

সর্বাধিক পঠিত