প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতীয় বোলারদের তুলোধুনো করে ওয়ানডে সিরিজ অস্ট্রেলিয়ার

রাহুর রাজ : [২] সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে রানের ফোয়ারা ছুটছে। টানা দুই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের দলীয় স্কোর তিনশ ছাড়ালো। তবে পর পর দুটি ম্যাচেই অজিদের রান পাহাড়ের চূড়ায় উঠতে ব্যর্থ ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। রোববার ভারতকে ৫১ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ এক ম্যাচ হাতে রেখে নিশ্চিত করলো অস্ট্রেলিয়া।

[৩] শুক্রবার ২৭ নভেম্বর প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ভারতের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৩৭৪ রান করে জিতেছিল ৬৬ রানে। দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও এই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে দলীয় রানের রেকর্ড রান করলো অজিরা। ওয়ানডে ইতিহাসে দ্বিতীয়বার প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যানের হাফসেঞ্চুরিতে স্বাগতিকরা রোববার ২৯ নভেম্বর ৪ উইকেটে করে ৩৮৯ রান। প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয়টিতেও সেঞ্চুরি করেন স্টিভেন স্মিথ। জবাবে বিরাট কোহলি ও লোকেশ রাহুলের ফিফটিতে লড়াই করে ভারত। ৯ উইকেটে ৩৩৮ রানে থামে তারা।

[৪] ওপেনিংয়ে অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নারের ১৪২ রানের জুটি দারুণ শুরু এনে দেয় স্বাগতিকদের। ফিঞ্চ ৬৯ বলে ৬০ রানে আউট হওয়ার পর ওয়ার্নার আর স্মিথের জুটি ১৪ রানের বেশি হয়নি। ৭৭ বলে সাত চার ও তিন ছয়ে ৮৩ রানে বিদায় নেন ওয়ার্নার।

[৫] পরে মার্নাস লাবুশানে ও স্মিথ বেশ জমিয়ে তুলেছিলেন ম্যাচ। তাদের ১৩৬ রানের জুটি ছিল অনবদ্য। ৩৮ বলে ফিফটি ছোঁয়া স্মিথ তার দশম সেঞ্চুরি করেন ৬২তম বলে। আর দুটি বল খেলে ১০৪ রানে শেষ হয় তার ১৪ চার ও ২ ছয়ে সাজানো ৬৪ বলের ইনিংস।

[৬] লাবুশানের সঙ্গে চতুর্থ উইকেটে ৮০ রান তোলার পথে ঝড় তোলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। মাত্র ৪৫ বলে এই পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংসের জুটি গড়েন তারা। লাবুশানে ৭০ রানে আউট হন। ম্যাক্সওয়েল ২৯ বলে চারটি করে চার ও ছয়ে ৬৩ রানে অপরাজিত ছিলেন।

[৭] ভারতের পক্ষে মোহাম্মদ সামি, যশপ্রীত বুমরা ও হার্দিক পান্ডিয়া একটি করে উইকেট নেন।

[৮] বড় লক্ষ্যে নেমে শুরুতে ব্যাট হাতে চড়াও হন শিখর ধাওয়ান (৩০) ও মায়াঙ্ক আগারওয়াল (২৮)। তাদের ৫৮ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে অষ্টম ওভারে। টানা দুই ওভারে দুই ওপেনারের বিদায়ে ঝুঁকিতে পড়েছিল ভারত।

[৯] তবে শ্রেয়াস আইয়ার ও রাহুলের সঙ্গে দুটি পঞ্চাশোধ্র্ব জুটিতে দলকে পথে ফেরান কোহলি। ৯৩ রানের জুটি ভাঙে আইয়ারের (৩৮) আউটে। রাহুলের সঙ্গে দলীয় স্কোরবোর্ডে ৭২ রান যুক্ত করে বিদায় নেন কোহলি। জশ হ্যাজেলউডের বলে ৮৯ রানে মোয়াসেস হেনরিক্সের ক্যাচ হন ভারতের অধিনায়ক।

[১০] হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গে ৬৩ রানের জুটি গড়ে বিদায় নেন রাহুল। ইনিংসের দ্বিতীয় সেরা ৭৬ রান করেন তিনি ৬৬ বলে, চারটি চার ও পাঁচটি ছয়ে। পরে পান্ডিয়া (২৮) ও রবীন্দ্র জাদেজার (২৪) ব্যাটে তিনশ ছাড়ায় সফরকারীরা। দুজনই প্যাট কামিন্সের শিকার হলে আর কেউ হাল ধরতে পারেননি।

[১১] অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কামিন্স সর্বোচ্চ তিন উইকেট নেন। দুটি করে শিখার করেন হ্যাজেলউড ও অ্যাডাম জাম্পা। – ক্রিকইনফো

সর্বাধিক পঠিত