প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অবশেষে ফরিদপুরে প্রকাশ্যে মাদ্রাসা ভাংচুরের ঘটনায় মামলা

হারুন-অর-রশীদ : [২] অবশেষে ফরিদপুরের সালথায় প্রকাশ্যে আহলে হাদিস মতাদর্শের একটি মাদ্রাসায় হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মো. নুরুল আলম বাদী হয়ে বুধবার (১৮ নভেম্বর) রাতেই সালথা থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। এ ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে সারাদেশে আলোচিত হয়।

[৩] মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মাদ আলী জিন্নাহ সাংবাদিকদের বলেন, আহলে হাসিদ মতাদর্শের মাদ্রাসা ভাংচুরের ওই ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা। মামলায় ২৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৭-৮ শ’ লোককে আসামী করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষে অভিযান চলছে।

[৪] নগরকান্দার সার্কেলের সিনিয়র এএসপি এএফএম মহিউদ্দিন বলেন, বিষয়টি খুব সেনসেটিভ। তাই এ ঘটনা খুব গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

[৫] উল্লেখ্য,ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় প্রকাশ্যে দিবালকে আহলে হাদিস মতাদর্শের একটি মাদ্রাসা ও বাড়ি ঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের ডাঙ্গা কামদিয়া গ্রামে প্রায় ২ বছর আগে এই মাদ্রাসা তৈরি করে আহলে হাদিস মতবাদে বিশ্বাসীগণ।

[৬] সালথা থানা উলামা পরিষদ ও তৌহিদী জনতার ব্যানারে উত্তেজিত জনতা বুধবার (১৮ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে এই মাদ্রাসা ভাংচুর করে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত