প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] উহানে করোনা ছড়ানোর খবর প্রকাশে পাঁচ বছরের জেল হল সাংবাদিক ঝ্যাংয়ের

রাশিদুল ইসলাম : [২] ৩৭ বছরের চীনা সাংবাদিক ঝ্যাং ঝান তার প্রতিবেদনে বলেছিলেন উহান থেকেই প্রথম ভাইরাস ছড়িয়েছে। গত বছর ডিসেম্বর থেকেই উহানে সংক্রামক ভাইরাসের হানায় বেশকিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন এখবরও ফাঁস করেন তিনি। বর্তমানে তিনি কারাগারে এবং তাকে ভোগ করতে হবে ৫ বছরের কারাদণ্ড। টাইমস অব ইন্ডিয়া/ওয়াল

[৩] হংকংয়ের এক নারী ভাইরোলজিস্ট এর আগে ভাইরাসের প্রমাণ দেওয়ায় তাকে যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে বাঁচতে হয়েছে। গত বছর ডিসেম্বর থেকেই উহানে সংক্রামক ভাইরাসের হানায় বেশকিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন, এমন খবর ছাপানোর পর গত মে মাসেই ঝ্যাংকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে পুডংয়ের ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে মামলার রায়ে ওই শাস্তি দেয়া হয়েছে তাকে।

[৪] ফেব্রুয়ারিতে সাংহাই থেকে উহানে আসেন ঝ্যাং। উহানে তখন মারণ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। সে সময়েই একের পর এক খবর বের করেছিলেন তিনি। চীনের হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডারস জানিয়েছে, সংক্রমণ কীভাবে উহানে ছড়িয়ে পড়ছে, ভাইরাস কোথা থেকে এল ইত্যাদি নানা বিষয়ে লেখালিখি শুরু করেছিলেন সাংবাদিক। করোনা নিয়ে মুখ খুলে কীভাবে সাংবাদিক, বিজ্ঞানী, ডাক্তারদের নাজেহাল হতে হচ্ছে সে নিয়েও নিজের টুইটার, ইউটিউব এবং উইচ্যাট অ্যাকাউন্টে সরব ছিলেন ঝ্যাং।

[৫] চেন মাই ও কাই ওয়েই নামে আরও দুই সাংবাদিক করোনা নিয়ে তথ্য দেয়ায় তাদের আটক করা হয়। লি ঝেহুয়া নামে এক সাংবাদিক প্রথম করোনাভাইরাস নিয়ে খবর ছাপার পরে উধাও হয়ে যান। তার কোনও খবরই পাওয়া যায়নি এখনও।

[৬] তবে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় লাভের পর ভাইরোলজিস্ট লি-মেং ইয়ান বলেছেন, হংকংয়ের বিশেষ বায়োসেফটি ল্যাবে এই নতুন ভাইরাস কীভাবে মোকাবেলা করা যায় সে নিয়ে গবেষণার মাঝ পর্যায়ে তাকে টেলিফোনে হুমকি দেয়া হয়। তার কম্পিউটার হ্যাক করা হয়। ব্যক্তিগত তথ্যেও নজরদারি শুরু হয়।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত