প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নড়াইলে অপহরণের পর হাত-পা, মুখ বাঁধা তরুণীকে উদ্ধার

ডেস্ক রিপোর্ট: নড়াইলে অপহরণের পর হাত-পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এখন সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই তরুণী। ডিবিসি নিউজ

শুক্রবার সকালে নড়াইল শহরে প্রাইভেট পড়তে যান সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ওই তরুণী। দুপুরে বাড়ি না ফেরায় পরিবার মোবাইল ফোন বন্ধ পায়। পরে মেয়েটির মোবাইল ফোন থেকে তার বাবার কাছে কল করে মুক্তিপণের জন্য পাঁচ লাখ টাকা দাবি করা হয়।

এরপরই পুলিশের শরণাপন্ন হন বাবা। পরে রাতে শহরের এস এম সুলতান স্মৃতিসংগ্রহশালার পাশ থেকে মেয়েটিকে হাত-পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ।

ভুক্তভোগী মেয়ের বাবা বলেন, আমার মেয়ে যে গাড়িতে ছিল সেখানে এক যাত্রী তার নাকের মধ্যে রুমাল দিয়ে নেশা জাতীয় কিছু দিয়ে অজ্ঞান করে ফেলে। তারপর তাকে নিয়ে গিয়ে আমাকে ফোন করে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপন চায়।

নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মেয়েটি। নড়াইল সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা মশিউর রহমান বাবু বলেন, তার সকল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আলামত সংগ্রহের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পরিক্ষার ফলাফল আমরা দুই-একদিনের মধ্যে ঘোষণা করতে পারবো। তবে সে এখন মোটামুটি স্বাভাবিক আছে।

সদর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে মামলা হয়েছে, আসামিদের ধরার চেষ্টা করছে পুলিশ।

নড়াইল পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দিন বলেন, আমরা মেয়েটিকে উদ্ধার করেছি। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এঘটনায় মামলা করা হয়েছে। আমরা আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রেখেছি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত