প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কামারখন্দে সন্ধ্যা নেমে আসলেই শুরু হয় সন্ত্রাসীদের কার্যক্রম

মো. রাইসুল ইসলাম: [২] সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার কোনাবাড়ি মফিজ মোড় এলাকায় একের পর এক ঘটেই চলছে ছিনতাইয়ের ঘটনা। সন্ধ্যা হলেই জনমনে সৃষ্টি হচ্ছে আতঙ্ক, প্রশাসনের তেমন কোনো তৎপরতা না থাকায় বারবার এধরনের ঘটনা ঘটছে বলে মনে করছেন সাস্থানীয় এলাকাবাসী।

[৩] সন্ধ্যা নেমে আসলেই জনমানব শূন্য হয়ে পড়ে কোনাবাড়ি মফিজ মোড় এলাকা, শুরু হয় সন্ত্রাসীদের কার্যক্রম। এ সময় দু’একজন পথচারী চলাচল করার সময় রাস্তা অবরোধ করে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র প্রদর্শন করে, ভয়-ভীতি দেখিয়ে হাতিয়ে নেয়া হয় মোবাইলফোন নগদ টাকা সহ মূল্যবান জিনিসপত্র।

[৪] রোব বার রাত ৯ টার দিকে উপজেলার ঝাটিবেলাই গ্রামের অটো-রিকশা চালক চাঁদ আলী কাজ শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে মফিজ মোড় এলাকায় আসলে তার থেকে অটোরিকশা, নগদ টাকা এবং মোবাইল ফোন ছিনতাই করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

[৫] এসময় রিক্সা চালক চাঁদ আলী জানান, সারাদিন অটোরিকশা চালিয়ে কোনাবাড়ি মফিজ মোড় এলাকা দিয়ে বাড়ী ফিরছিলাম হঠাৎ সামনে কিছু লোকজন এসে দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে আমার হাত-পা মুখ বেঁধে রেখ মোবাইলফোন, টাকা ও অটোরিকশাটি নিয়ে চলে যায়। অনেক কষ্টের টাকা দিয়ে অটোরিকশা কিনে ছিলাম এখন কি করে সংসারের খরচ চালাবো।

[৬] উল্লেখ্য, গত ৩০শে জুন একই স্থানে রাত ৯টার দিকেই, নান্দিনা কামালিয়া গ্রামের বেকারি ব্যবসায়ী আব্দুল মালেকের ১৫ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা তাকে মারধর করে।

[৭] এমন ছিনতাইয়ের শিকার হওয়া অনেক ভুক্তভোগীর বর্ণনায় ছিনতাইয়ের কায়দা-কৌশল ছিনতাইকারীর শারীরিক গঠনের মিল পাওয়া যায়। প্রত্যেকটা ছিনতাইয়ের ঘটনায় ঘটছে সন্ধ্যার পরপরই। ভুক্তভোগীদের বক্তব্যের মাধ্যমে জানা যায়, ছিনতাইকারীরা সকলেই উঠতি বয়সের যুবক।

[৮] এ বিষয়ে কামারখন্দ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শাহীনুর কবির বলেন,আমাদের কাছে ছিনতাইয়ের কনো অভিযোগ আসেনি অভিযোগ পেলেই প্রয়োজনে ব্যবস্তা নিবো। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

সর্বাধিক পঠিত