প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যৌতুকের জন্য প্রাণ দিলো নববধূর, স্বামী ও শাশুড়ী গ্রেফতার

বগুড়া প্রতিনিধি: [২] জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার চাকলমা গ্রামে যৌতুকের দাবীতে স্বর্না খাতুন (১৮) নামে এক নববধূকে পিটিয়ে হত্যা করেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এ ঘটনায় পুলিশ নিহত নববধূর স্বামী ও শ্বাশুড়িকে গ্রেফতার করেছে। রোববার বেলা ১১টায় নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটগ্রাম ইউনিয়নের চাকলমা গ্রামে উক্ত ঘটনা ঘটে।

[৩] জানা যায়, নন্দীগ্রাম উপজেলার কালিশ গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে স্বর্না খাতুন পাশের কালিশ গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে খায়রুলের সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে ৯ মাস পূর্বে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিয়ের কিছুদিন পর নববধূ স্বর্না খাতুন তার স্বামীর বাড়িতে ঘর সংসার শুরু করে। গত কয়েকদিন হলে শশুড় বাড়ির লোকজন চার লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। রবিবার সকালে স্বর্নার পিতা আনোয়ার হোসেন মেয়ের বাড়িতে গিয়ে যৌতুকের বিষয়ে উভয় পক্ষের আলোচনার জন্য আগামী বুধবার দিন ধার্য্য করে বাড়ি ফিরে যায়।

[৪] বাড়ি ফিরে যাওয়ার পর বেলা ১১টায় আনোয়ার হোসেন কে ফোন করে বলা হয়, স্বর্না খাতুন গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে আনোয়ার হোসেন মেয়ের বাড়ি গিয়ে তার মেয়ের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন দেখতে পেয়ে বিষয়টি থানা পুলিশকে খবর দেয়। নববধূর পিতা আনোয়ার হোসেন এ প্রতিবেদক-কে বলেন, ৪ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে তার মেয়েকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে প্রচার চালানো হয়েছে।

[৫] নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শওকত কবীর এ প্রতিবেদক-কে বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে,স্বর্নাকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত নববধূর লাশ উদ্ধা করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী খায়রুল ইসলাম ও শ্বাশুড়ি নাদিরা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

সর্বাধিক পঠিত