প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে ফিরছেন তামিম

রাহুল রাজ : [২] গত মার্চে করোনাভাইরাসের কারণে যখন ক্রিকেট বন্ধ হলো বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা তখন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলছিলেন। তারপর প্রায় দুইশ দিন পর প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরে মন্দ খেলেননি বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা।

[৩] নিজেদের মধ্যে দুই দলে ভাগ হয়ে খেলতে নামা দু’দিনের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচটাতে নজর কেড়েছেন কয়েকজন ক্রিকেটার। এক দিনের বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচটা মাঠে গড়াচ্ছে সোমবার ৫ অক্টোবর।

[৪] মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৯টায়। নিগলসের কারণে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে না পারা ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল খেলবেন দ্বিতীয় ম্যাচে। রায়ান কুক একাদশের হয়ে খেলবেন বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যানটি।

[৫] এই মুহূর্তে শ্রীলঙ্কা থাকার কথা ছিল বাংলাদেশ দলের। তিন টেস্টের সিরিজ খেলতে অনেকদিন ধরে অনুশীলন করে যাচ্ছিলেন ক্রিকেটাররা। টিম হোটেলেও উঠে পড়েন মুশফিকুর রহিম, মুমিনুল হক, তামিম ইকবালরা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে জানা গেল, কোয়ারেন্টাইন ইস্যুতে বনিবনা না হওয়াতে আপাতত দ্বীপদেশটিতে যাচ্ছে না বাংলাদেশ।

[৬] সিরিজ স্থগিত হওয়ার পরই প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার তড়িৎ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি। বোলিং কোচ ওটিস গিবসন ও ফিল্ডিং কোচ রায়ান গিবসনের নামে দুই দলে বিভিক্ত হয়ে প্রস্তুতি ম্যাচ দুটি খেলছেন ক্রিকেটাররা। প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ এক সেঞ্চুরি করেছেন রায়ান কুক একাদশের অধিনায়ক মুমিনুল হক। বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন গিবসন একাদশের ইবাদত হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান।

[৭] তার আগে কুক একাদশের পেসার তাসকিন আহমেদ ঝলক দেখিয়েছেন। গিবসন একাদশের তরুণ সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত ও সৌম্য সরকার রান পেয়েছিলেন। তবে সিনিয়র ক্রিকেটারদের মধ্যে এক মুমিনুল হক ছাড়া বাকিদের কেউই সুবিধা করতে পারেননি।

[৮] মুশফিকুর রহিম আউট হয়েছেন মাত্র ৩ রান করে। মাহমুদুউল্লাহ ফিরেছেন ত্রিশ পেরুতেই। দ্বিতীয় ম্যাচে নিশ্চয় নজর থাকবে তাদের ওপর। এদিকে দ্বিতীয় ম্যাচে ফেরা তামিম ইকবালের দিকেও নিশ্চয় বাড়তি নজর থাকবে।

[৯] অনেকদিন প্রত্যাশিত পারফর্ম করতে না পারা তামিমের সর্বশেষ জিম্বাবুয়ে সিরিজটা কেটেছে স্বপ্নের মতো। সবেই রানে ফিরেছিলেন, করোনার কারণে খেলা বন্ধ হয়ে গেল তখনই। তামিম ফর্ম ধরে রাখতে পেরেছেন কতোটা সেটা জানা আগ্রহ থাকবে অনেকের।

[১০] ওটিস গিবসন একাদশ: সাইফ হাসান, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাঈম হাসান, হাসান মাহমুদ, এবাদত হোসেন চৌধুরী, মোস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন।

[১১] রায়ান কুক একাদশ: তামিম ইকবাল, ইয়াছির আলী চৌধুরী রাব্বি, সাদমান ইসলাম, মুমিনুল হক সৌরভ (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, নুরুল হাসান সোহান, সাইফউদ্দিন, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ ও মোহাম্মদ আল-আমিন হোসেন।

সর্বাধিক পঠিত