প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] লাদাখে ভারত নামাচ্ছে হ্যালের ‘অ্যাডভান্সড লাইট কপ্টার’, সেনার জন্য নেবে রসদ

রাশিদুল ইসলাম : [২] ভারতের নিজস্ব প্রযুক্তিতে অ্যাডভান্সড লাইট হেলিকপ্টার বানিয়েছে হিন্দুস্থান অ্যারোনটিক্স লিমিটেড (হ্যাল)। সিয়াচেনের হাড়হিম ঠান্ডায় নজরদারি চালানোর দক্ষতা আছে এই কপ্টারের। প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হ্যালের তৈরি হাল্কা ওজনের এই মাল্টিরোল হেলিকপ্টার যে কোনও দুর্গম এলাকায় দ্রুত পৌঁছে যেতে পারে। টাইমস অব ইন্ডিয়া

[৩] অতিরিক্ত ৩০ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে ভারত ওই সীমান্তে। এই অতিরিক্ত বাহিনীর জন্য শীতের রসদ নিয়ে যাওয়া, পাশাপাশি পাহাড়ি এলাকায় দিনে ও রাতে নজরদারি চালানোর জন্য আধুনিক প্রজন্মের দুটি অ্যাডভান্সড লাইট হেলিকপ্টার লাদাখে পাঠাচ্ছে ভারতীয় বিমানবাহিনী।

[৪] ভারতীয় বাহিনীর জন্য রেশন, বিশেষ পোশাক ও অন্যান্য জরুরি পণ্য নিয়ে কিছুদিনের মধ্যেই সীমান্তে পৌঁছে যাবে এই দুই মাল্টিরোল লাইট হেলিকপ্টার। তারপর এদের কাজ হবে সীমান্ত পাহারা দেওয়া। পাহাড়ি খাঁজে ওঠানামা করতে পারে এই কপ্টার।

[৫] প্যাঙ্গংয়ের ফিঙ্গার পয়েন্ট, দৌলত বেগ ওল্ডি, দেপসাং ভ্যালির মতো স্পর্শকাতর জায়গাগুলিতে এখন মিরাজ, সুখোই, মিগের মতো কমব্যাট ফাইটার এয়ারক্রাফ্ট নামানো হয়েছে। চীনের বোমারু বিমান বা জে-২০ চেংড়ু ফাইটার জেটের মোকাবেলা এসব ভারতীয় জঙ্গি বিমান।

[৬] অ্যাডভান্সড লাইট হেলিকপ্টার ছাড়াও লাদাখ সীমান্তে হ্যালের তৈরি লাইট ইউটিলিটি কপ্টার পাঠাচ্ছে বায়ুসেনা। ৫০০০ মিটার উচ্চতায় দৌলত বেগ ওল্ডির অ্যাডভান্সড ল্যান্ডিং গ্রাউন্ডে সহজেই অবতরণ করতে পারবে এই হেলিকপ্টার। সিয়াচেনের দুটি হেলিপ্যাডেও ওঠানামা করার ক্ষমতা আছে এই কপ্টারের। যে কোনও দুর্গম পাহাড়ি খাঁজের কাছাকাছি নেমে এসে নজরদারি চালাতে পারবে এই কপ্টার। ওজনে হাল্কা হওয়ায় এর গতিও বেশি এবং খুব দ্রুত এই কপ্টার উড়িয়ে শত্রুঘাঁটির খবর নিয়ে আসতে পারবেন বায়ুসেনার পাইলটরা।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত