প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] তামিম মাত্র ১৭ ম্যাচে হাজার রান করে সবার উপরে

রাহুল রাজ: [২] তামিম ইকবাল আজ দারুণ সফলতার সঙ্গে নিজের ক্যারিয়ারের তেরোতম বছরে উপনীত হয়েছেন। দীর্ঘ এসময়ে তিনি নিজেকে শুধু দেশসেরা ব্যাটসম্যানই নয়, বরং বিশ্বসেরা ওপেনারদের একজন হিসেবে পরিচিত করিয়েছেন।

[৩] একইসঙ্গে নিজের ঝুলিতে জমা করেছেন চমকে দেওয়ার মতো বেশকিছু ব্যাটিং রেকর্ডস। যার মধ্যে ওয়ানডেতে সবচেয়ে কম ইনিংস খেলে পাঁচ হাজার রান থেকে ছয় হাজার রানের কোটায় লাফ দেওয়ার রেকর্ডটি ভক্তদের মনে বেশ দাগ কেটেছে। বিশ্বের বড় বড় ব্যাটিং স্টারদের পিছনে ফেলে সেই তালিকার শীর্ষস্থানে উঠে এসেছেন তামিম ইকবাল খান।

[৪] আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ২০৫ ইনিংসে এখন পর্যন্ত তামিমের সংগ্রহ মোট ৭২০২ রান। এরমধ্যে পাঁচ হাজার থেকে ছয় হাজার রানের ক্লাবে প্রবেশ করতে তিনি মাত্র ১৭টি ইনিংস খেলেছিলেন।

[৫] যেখানে তালিকার অন্যান্য সবাইকে সেখানে পৌঁছাতে নূন্যতম বিশটি ম্যাচ খেলতে হয়েছে। একই কারণে এসময়টাতে অন্যান্যদের তুলনায় তাঁর গড় রানও ছিল সবচেয়ে বেশি (৫৮.৮২)।

[৬] অন্যদিকে তামিমের পর তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন ভারতীয় হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা। এক হাজার রানের এই লাফটি দিতে তাঁর প্রয়োজন হয়েছিল ২০টি ইনিংস। একইভাবে নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসনকেও রেকর্ডটি গড়তে সমসংখ্যক ম্যাচ খেলতে হয়েছিল।
তালিকায় থাকা পরে থাকা চারজন হলেন সাবেক ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান ডেসমন্ড হেইন্স, সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী, অস্ট্রেলিয়ান ম্যাথু হেইডেন ও বিরাট কোহলি।

[৭] তাঁদের প্রত্যেকেই ২১টি ইনিংস খেলে এই হাজার রানের পথটি পাড়ি দিয়েছিলেন। এদিকে তাঁদের চেয়ে মাত্র একটি ইনিংস বেশি খেলে একই মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার হাশিম আমলা ও নিউজিল্যান্ডের রস টেইলর। আর তালিকার সবচেয়ে নিচে থাকা এবিডি ভিলিয়ার্সে প্রয়োজন হয়েছিল ২৩টি ইনিংস।সূত্র : ক্লিক ইনফো

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত