প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাড়ির নকশা তৈরি করে কেনার আহ্বান, বিতর্কে বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল

তন্নীমা আক্তার : [২] দলীয় প্রতীক দেওয়া শাড়ির নকশা তৈরি এবং দলের কর্মীদের তা কেনার আহ্বান জানিয়ে বিতর্কের কেন্দ্রে ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পল।মহিলা মোর্চার বিভিন্ন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে পাঠানো বার্তায় নেত্রী জানিয়েছেন, পদ্মফুলের চিহ্ন সম্বলিত শাড়িগুলির দাম ২৮০ টাকা, এবং ইচ্ছুকরা বিজেপি কার্যালয় থেকে শাড়িগুলি কিনতে পারেন। সেখানে অগ্নিমিত্রা পল আরও বলেন, “দলের কর্মসূচীতে এই শাড়িগুলি পড়া উচিত মহিলা কর্মীদের”। দলের একাংশ এই পদক্ষেপকে ভাল চোখে দেখছে না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিজেপির এক রাজ্য নেতার কথায়, “যখন কাউকে বিজেপির কোনও শাখার প্রধান করা হয়, দলের কর্মীদের তাঁরা কী করতে বলছেন বা তাঁরা কী করছেন, সেদিকে সচেতন থাকা উচিত। এমনকী মহিলা কর্মীদের তিনি শাড়ি কিনতে বা পড়তে বলতে পারেন না, যখন এইরকম পদাধিকারী এই ধরণের কথা বলেন, তার অন্য মানে দাঁড়ায়”।এনডিটিভি বাংলা

[৩] অগ্নিমিত্রা পলের এই পদক্ষেপকে “অপ্রত্যাশিত” বলে মন্তব্য করেছেন মহিলা মোর্চার এক নেত্রী। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, “দীর্ঘদিন ধরে আমরা বিজেপির সঙ্গে যুক্ত রয়েছি, তবে পদ্মফুলের ছবি সম্বলিত শাড়ি পড়ার কখনও প্রয়োজনীয়তা আছে বলে মনে করিনি। এটা রাজনীতি, কোনও ফ্যাশন শো নয়। এখানকার নিয়মকানুন আলাদা। যখন কারও আচরণে নজরদারি করা হয়, তখন এই ধরণের মন্তব্য করা যায় না”।

[৪] এই পদক্ষেপকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন খোদ অগ্নিমিত্রা পল, এবং দাবি করেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের অনুমতি নিয়েছিলেন তিনি। বিজেপি নেত্রী আরও দাবি করেন, পদ্মফুলের ছবি সম্বলিত কয়েকটি শাড়ি তৈরি করেছিলেন তিনি এবং কয়েকজন বিজেপি কর্মী সেই শাড়িগুলিতে অসন্তোষ প্রকাশ করে আরও শাড়ি তৈরি করতে বলেন। এখন একটি এনজিও শাড়িগুলি তৈরি করছে বলে দাবি করেন অগ্নিমিত্রা। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে তিনি বলেন, “আমি বিনামূল্যে এর নকশা তৈরি করি এবং শাড়ি বিক্রির অর্থ এনজিওতে যাবে”।

[৫] ২০১৯ এর মার্চে বিজেপিতে যোগ দেন ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পল এবং ২০২০ এর জুনে রাজ্য বিজেপির মহিলা মোর্চার প্রধান হন। তাঁর দাবি, ২৩ বছর ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে কাজ করার পর, তাঁর সামগ্রি বিক্রির জন্য কোনও “সস্তা পরামর্শ” নিতে হবে না তাঁকে। তিনি জানান, “এই শাড়ি বিজেপির আউটলেট বাস্তু ভাণ্ডারে পাওয়া যাবে। এবং শাড়ি বিক্রি থেকে প্রাপ্ত অর্থ এনজিও তে যাবে। সেখানে আমার কোনও ভুমিকা নেই। এই শাড়িগুলি সাধ্যের মধ্যেই। ২৮০ টাকায় সুতির শাড়ি পাওয়া যাবে? অন্তত ৫০০ টাকা দাম পড়বে”। দলের প্রতি ভালবাসা থেকেই শাড়িগুলিতে তিনি এই নকশা তৈরি করেছেন বলে দাবি করেন অগ্নিমিত্রা পল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত