প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মিশন দখল করতে চাওয়া ২৭ বাংলাদেশির থাকা-খাওয়া দেখছে ভিয়েতনাম

ডেস্ক রিপোর্ট : [২] অবৈধভাবে ভিয়েতনামে যাওয়া এবং সেখানে বাংলাদেশ মিশন দখল করতে চাওয়া ২৭ বাংলাদেশিকে হ্যানয়ে দুটি গেস্ট হাউজে রাখা হয়েছে। দূতাবাসের সহায়তায় ভিয়েতনাম সরকার বিনা খরচে তাদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করেছে। ভিয়েতনামে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত সামিনা নাজ বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য জানান। বাংলাদেশে ফেরত যাওয়ার সব খরচ সরকারকে বহন করতে হবে এবং দাবি পূরণ না হলে পৃথিবীর অন্যান্য দেশে বাংলাদেশ মিশন আক্রমণ করা হবে- তাদের এ ধরনের হুমকির বিষয়ে জানতে চাইলে রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রতিটি সরকার একটি নির্দিষ্ট নিয়ম, সাধ্য ও বাস্তবতার মধ্যে কার্যক্রম পরিচালনা করে এবং এক্ষেত্রে বাংলাদেশ কোনও ব্যতিক্রম নয়। বাংলাট্রিবিউন
বিষয়টি ব্যাখা করে তিনি বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে হাজার হাজার বাংলাদেশি যারা পর্যটক বা অন্যান্য ধরনের ভিসা নিয়ে ভ্রমণ করেছিলেন, তারা বিভিন্ন দেশে আটকা পড়েন। তাদের দেশে ফেরত আনা হয়েছে। তবে তাদের ফেরত আনার জন্য সরকার কোনও অর্থ ব্যয় করেনি বলে তিনি জানান।

[৩] তিনি বলেন, এ খাতে খরচ করার মতো অর্থ দূতাবাসের কাছে নেই এবং এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনার জন্য আমরা ঢাকাকে জানিয়েছি। উল্লেখ্য, ওই ২৭ বাংলাদেশি গত নভেম্বর থেকে জানুয়ারির মধ্যে পর্যটক ভিসা নিয়ে ভিয়েতনামে প্রবেশ করেন।

তাদের বাস্তবতার বিষয়ে রাষ্ট্রদূত বলেন, এরা পর্যটক ভিসা নিয়ে ভিয়েতনামে প্রবেশে করেছে এবং হো চি মিন শহরে একটি কোম্পানির সঙ্গে কাজ করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছে, যা তারা করতে পারে না।
[৪] দ্বিতীয়ত, তারা বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ভিয়েতনামে থেকে ভিয়েতনাম সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতিসহ বিভিন্ন অভিযোগ আনছে যা এদেশের সরকার ভালোভাবে নেবে না। তৃতীয়ত আমরা চাইলেও তাদের ফেরত পাঠাতে পারবো না যতক্ষণ পর্যন্ত না ভিয়েতনাম সরকার তাদের বিমানবন্দর উন্মুক্ত করছে।

তিনি বলেন, আমাদের বড় সুযোগ ছিল ২ জুলাই বিশেষ ফ্লাইট যা তারা গ্রহণ করতে অস্বীকার করে।

[৫] ২ জুলাই বিশেষ ফ্লাইটের বিষয়ে তিনি বলেন, ভিয়েতনাম সরকার তাদের নাগরিকদের ফেরত আনার জন্য বাংলাদেশে একটি বিশেষ ফ্লাইট পাঠাচ্ছিল এবং আমরা ওই সুযোগ নিয়ে এখানে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের দেশে ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করছিলাম এবং ১১জন ফেরতও গেছে।

হ্যানয়-কলম্বো-ঢাকা ফ্লাইটের হ্যানয়-কলম্বো ভাড়া ছিল ৯০০ ডলারের বেশি। কিন্তু ঢাকা পর্যন্ত ভাড়া আমরা তাদের সঙ্গে আলোচনা করে নির্ধারণ করেছিলাম ৬৬৫ ডলার।

[৬] বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, ঢাকা থেকে যে ৬৩জন ভিয়েতনামের নাগরিক ফেরত গেছেন তাদের ১৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং এ পরিস্থিতিতে ভিয়েতনাম বাংলাদেশের জন্য বিশেষ ফ্লাইটের কোনও অনুমতি দেবে না।

দূতাবাস কী করছে জানতে চাইলে রাষ্ট্রদূত বলেন, ওই বাংলাদেশিদের পাসপোর্ট এখানকার দালাল চক্রের কাছে আছে। আমরা ইতোমধ্যে ভিয়েতনাম সরকারের কাছে চিঠি দিয়েছি যাতে করে ওই পাসপোর্ট উদ্ধার করা হয়। তারা এখানে ভিসার মেয়াদের বেশি অবস্থান করার কারণে যে জরিমান হয়েছে সেটি মওকুফ ও ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর জন্য বলেছি। এছাড়া প্রত্যবাসনের জন্যও আমরা সহায়তা চেয়েছি।

কারা এই ২৭ বাংলাদেশি

[৭] এ বিষয়ে রাষ্ট্রদূত বলেন, এরা বিভিন্ন সময়ে অনলাইনে বিভিন্ন প্রতিবাদ অনুষ্ঠান করেছে এবং তারা সেখানে যেসব বক্তব্য দিয়েছে সেখান থেকে আমরা যতটুকু জেনেছি তারা নভেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসের মধ্যে ভিয়েতনামে প্রবেশ করে। এদের মধ্যে ২৫ বছর থেকে ষাটোর্ধ্ব বয়স্ক ব্যক্তিও আছে এবং অনেকে আছেন যারা বিভিন্ন দেশে কাজ করেছেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, এদের বিষয়ে আমরা প্রথম জানতে পারি মে মাসে যখন তারা যে কোম্পানিতে কর্মরত ছিল তাদের বিরুদ্ধে ভার্চুয়াল প্রতিবাদ করছিল। তাদের বিষয়ে জানার পরে তাদের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করি এবং তাদের আমাদের কাছে একটি আবেদন করার জন্য অনুরোধ করি যাতে করে বিষয়টি দূতাবাস আনুষ্ঠানিকভাবে উপস্থাপন করতে পারে।

তারা যেসব দালালের মাধ্যমে গিয়েছিল তাদের তথ্য আমাদের দিয়েছে এবং আমরা বিষয়টি ঢাকাকে জানিয়েছি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য। ভিয়েতনামের দালাল চক্রের বিষয়ে তিনি বলেন, এদের প্রত্যেকে ভিয়েতনামী বিয়ে করেছে এবং এর ফলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার ক্ষেত্রে কিছুটা জটিলতা আছে।

[৮] উল্লেখ্য, সোমবার (৬ জুলাই) পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন জানান, অবৈধভাবে ভিয়েতনামে যাওয়া ২৭ বাংলাদেশি ওই দেশে অবস্থিত বাংলাদেশ মিশন দখল করার চেষ্টা করেছে। একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে তাদের নেতৃত্ব দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সদ্য সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

তবে নুর বলেন, তিনি প্রবাসী অধিকার পরিষদ’ নামে একটি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত আছেন, যেটা প্রায় মাস খানেকের মতো ধরে তৈরি হয়েছে। তারা ভিয়েতনামে বাংলাদেশিদের সহায়তা না করার বিষয়ে প্রতিবাদ করেছেন। উসকানি দেননি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত