প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতের কেরালার তরুণের মৌমাছির সঙ্গে বন্ধুত্ব! গিনেস বুকে উঠেছে নাম

আন্তর্জাতি রির্পোট : [২] মৌমাছির হুলের ভয় কার না আছে বলেন তো ? অথচ সেই প্রাণীর সঙ্গেই রীতিমতো বন্ধুত্ব গড়ে তুলেছেন কেরালার এক তরুণ। শুধু তাই নয়, মৌমাছির পালকে চার ঘণ্টা মাথায় ও মুখে নিয়ে বসে থেকে গিনেস বুকে নামও তুলে নিয়েছেন নেচার এমএস। মৌমাছি প্রেমীর পুরো মুখ আর মাথায় মৌমাছির ঝাক ৪ ঘণ্টা ১০ মিনিট ৫ সেকেন্ডস বসেছিল বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

[৩] ডেইলি মেইলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তরুণ নেচার বলেছেন, মৌমাছি আমার প্রিয় বন্ধু। আমার ইচ্ছা অন্যরাও তাদের বন্ধু বানাক। বাবার সঙ্গে থেকেই মৌমাছির সঙ্গে ঘর করার কৌশল সে রপ্ত করেছে বলে জানালো। যখন বয়স সবেসাত সেই থেকে তাদের মুখ ও মাথায় নিয়ে ঘুরে বেড়াই। এখন অনায়াসে ৬০ হাজার মৌমাছিকে মাথায় ও মুখে বসতে দিতে পারেন ঐ তরুণের দাবি।

[৪] তিনি বলেন, সমাজের বাস্তুতন্ত্র ঠিক রাখতে মৌমাছির ভূমিকা অসামান্য। তারা সমাজবদ্ধ জীবও বটে। তাই তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব রেখে চললে মানুষেরই লাভ। জানা গেছে, নেচারের বাবা সূর্যকুমার একজন পুরস্কারপ্রাপ্ত মধু চাষী। গত ২ বছর আগে একইভাবে মৌমাছি সংরক্ষণ ও মধু চাষে সচেতনতা বাড়িয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন নেচার।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত