প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]সুবর্ণচরে সরকারি চাল জব্দ, ক্রেতাকে অর্থদন্ড

অহিদ মুকুল নোয়াখালী : [২] নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নে সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা দামের চালসহ বিদ্যুৎ মজুমদার নামে এক ক্রেতাকে আটক করেছে স্থানীয়রা। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে অর্থদন্ড ও মোট ৫৪০ কেজি চাল জব্দ করা হয়েছে। অভিযানের খবর পেয়ে পালিয়ে গেছে ডিলার হাবিব উল্যা বাহার।

[৩] বুধবার (২৭ মে) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ অভিযান পরিচালনা করেন সুবর্ণচর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আরিফুর রহমান।

[৪] ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের ৬, ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চালের ডিলার হাবিব উল্যা বাহার সুবিধাভোগীদের কাছে চাল বিক্রি না করে ৪৮০ কেজি চাল বিদ্যুৎ মজুমদার নামে এক ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে। ওই ক্রেতা চালগুলো অটোরিকশায় করে নিয়ে যাওয়ার সময় আক্তার তাকে মিয়ারহাট উত্তর গলিতে স্থানীয় লোকজন আটক করে। পরে খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে ৮ বস্তা ৪৮০ কেজি চাল জব্দ করে। একইসঙ্গে আক্তার মিয়ারহাট কাঁচা বাজারে ডিলারের দোকানে অভিযান চালিয়ে আরও ৬০ কেজি চাল ও ২৫টি খালি বস্তা জব্দ করে। পরে আটক ক্রেতাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দুই হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়েছে। অভিযুক্ত ডিলার হাবিব উল্যা বাহার পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

[৫] সুবর্ণচর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক চিন্তা মনি তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মোট ৫৪০ কেজি চাল ও ২৫টি খালি বস্তা জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ডিলারের বিরোদ্ধে চরজব্বার থানায় মামলা দায়ের করা হবে।

[৬] ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আরিফুর রহমান জানান, ডিলার হাবিব উল্যা বাহার সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা দামের ৪৮০ কেজি চাল (প্রতি বস্তায় ৩০ কেজি) সরকারি বস্তা থেকে বের করে নতুন ৮টি বস্তায় ঢুকিয়ে বিদ্যুতের কাছে বিক্রি করে দেয়। অভিযানের খবর পেয়ে বাহার পালিয়ে গেছে। তার বিরোদ্ধে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক চিন্তা মনি তালুকদার বাদী হয়ে থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করবেন। সম্পাদনা : জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত