প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমাদের বিশ্বাস করতে হবে, করোনা একটি রাজনৈতিক ভাইরাস, যার কর্মক্ষেত্র কিছু টার্গেটেড ভূমিতে

 

গোলাম সারোয়ার

করোনা থাকতে পারে এ রকম ১, ৯৩, ৬৪৫ জন মানুষকে পরীক্ষা করে বাংলাদেশে এ পর্যন্ত রোগীর পাওয়া গেছে ২৫ হাজার ১২১ জন। তার ভেতরে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৩৭০ জন, আর সুস্থ হয়েছেন ৪, ৯৯৩ জন। মানুষকে ভয় লাগানো বন্ধ করা গেলে ওই মৃত্যুর হার অর্ধেকে কমে আসবে। বাংলাদেশের স্বাভাবিক মৃত্যুর হার মতে, গত পাঁচ মাসে করোনা ছাড়াও মানুষ মারা যাওয়ার কথা ১৫, ১৮৫ জন। সে হিসেবে করোনাভাইরাস পৃথিবীতে আসার পর থেকে আমাদের মৃত্যুর সংখ্যা তুলনামূলকভাবে খুবই কম। কিন্তু একজন মানুষের অকাল মৃত্যুও কষ্টের, সে জন্যে মানুষকে সচেতন এবং আত্মবিশ্বাসী করে গড়ে তুলতে হবে। অতিরিক্ত ভয় দেখালে বহু সুস্থ মানুষও হার্টএ্যটাকে মারা যাবেন। আমাদের বিশ্বাস করতে হবে, করোনাভাইরাস একটি রাজনৈতিক ভাইরাস, যার কর্মক্ষেত্র কিছু রাজনৈতিকভাবে টার্গেটেড ভূমিতে। যেমন এই ভাইরাসের কারণে যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত মানুষ মারা গেছেন ৯১, ৯৮১ জন, যুক্তরাজ্যে ৩৪,৭৯৬ জন, স্পেনে ২৭,৭০৯ জন, ইতালিতে ৩২,০০৭ জন এবং ফ্রান্সে ২৮,২৩৯ জন। অথচ এই ভাইরাসের জন্মভূমি চীনের সীমান্তের কাছাকাছি দেশ ভিয়েতনামে করোনায় এখন পর্যন্ত কোনো মৃত্যু নেই। মালয়েশিয়ায় মৃতের সংখ্যা মাত্র ১১১ জন, সিঙ্গাপুরে ২১ জন, থাইল্যান্ডে ৫৬ এবং দুর্বল সামাজিক সামর্থের দেশ মিয়ানমারে মারা গেছেন মাত্র ৬ জন। তাই অহেতুক ভয় পেলে চলবে না। মানুষ আত্মবিশ্বাসী থাকলে মৃত্যু হার আরো কমবে। বাংলাদেশে করোনার নামে যেসব রোগী মারা যাচ্ছেন তাদের বেশিরভাগ মারা যাচ্ছেন ভয়ে, যার দায় আমাদের আতঙ্ক ছড়ানো প্রবণ মিডিয়ার। করোনার রোগী মানে কোনো অপরাধী নয়; তার সাথে, তার পরিবারের সাথে অমানবিক অচরণ করা বন্ধ করুন। মানুষকে স্বাভাবিকভাবে থাকতে দিন। অহেতুক আতঙ্ক ছড়ালে, সামাজিকভাবে অপদস্ত করলে ভালো মানুষও ভেঙে পড়বে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত