প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাতক্ষীরার শ্যামনগরে বিধবাকে গণধর্ষনের অভিযোগে ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আসাদুজ্জামান, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : [২] সাক্ষীরার শ্যামনগরে চার সন্তানের জননী এক বিধবা নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়ে। বৃহস্পতিবার বিকালে শ্যামনগর থানায় ওই বিধবা নারী নিজেই বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন। এর আগে বুধবার রাতে উপজেলার কুলতলী গ্রামে এ গণধর্ষনের ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে আটক করতে সক্ষম হননি।

[৩] এ মামলার আসামীরা হলেন, কুলতলী গ্রামের অফেজউদ্দীনের ছেলে ঘটক মহসীন হেসেন(৩০), রামচন্দ্রপুর গ্রামের মুজিবর রহমানের ছেলে সফিকুল (২৪), একই গ্রামের মৃত আব্দুল দফাদারের ছেলে আব্দুল হান্নান (২৭), দক্ষিন হাজীপুর গ্রামের দীঘির পাড় এলাকার আদম আলীর ছেলে সফিকুর রহমান বাবু (৩০) ও কাটাখালী গ্রামের আব্দুস সাত্তার গাইনের ছেলে গোলাম রব্বানী (২৩)

[৪] জানা যায়, শ্রীফলকাঠি গ্রামের ওই বিধবা নারী তার মেয়ের জন্য পাত্র দেখতে ঘটক মহসিন হোসেন ও মাটর সাইকেল চালক সফিকুর রহমান বাবুর সাথে একই উপজেলার কদমতলা এলাকায় যাওয়ার পথে তারা তাকে সন্ধ্যায় একটি চিংড়ি মাছের ঘেরে নিয়ে জোর পূর্বক আটকে রাখেন। এরপর তারা উক্ত ৫ জন পালাক্রমে তাকে ধর্ষন করেন। একপর্যায়ে ওই নারীর আত্নচিৎকারে ঘের কর্মচারী আলমগীর হোসেন ও শুধাংসু মন্ডল তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ নজরুল ইসলামের বাড়িতে নিয়ে যান। পরদিন বৃহস্পতিবার বিকালে তিনি থানায় মামলা দায়ের করেন।

[৫] এদিকে স্থানীয় একজন জনপ্রতিনিধি মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে বিষয়টি মিমাংশার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে, তিনি ওই ওই নারীর পরিবারকে এখনও চাপ প্রয়োগ করছেন বিষয়টি মিমাংশার জন্য।

[৬] শ্যামনগর থানার অফিসার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা এ ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষিতা ওই বিধবা নারীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ##

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত