প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় আশার আলো ব্ল্যাড প্লাজমা থেরাপি

সিরাজুল ইসলাম: [২] যুক্তরাষ্ট্রের কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ইয়ান লিপকিন এ থেরাপি প্রয়োগ করে সুফল পেয়েছেন। ফক্স বিজনেস নেটওয়ার্ক

[৩] এ পদ্ধতিতে তিনি চিকিৎসা শুরু করেছেন। তিনি বলেন, জানুয়ারির শেষ দিকে তিনি চীনে গিয়েছিলেন করোনার চিকিৎসায় ডাক্তারা আলাদা কী করছে, তা দেখতে। এরপর আগে তিনি বন্ধুর কাছ থেকে গবেষণাপত্র পান। এতে বলা হয়, প্লাজমা থেরাপি দিয়ে ১০ জনের চিকিৎসার জন্য করোনা রোগে সেরে ওঠা ব্যক্তির কাছ থেকে অ্যান্টিবডি নেওয়া হয়। ১০ জনই ভালো আছেন। নিউইয়র্ক টাইমস

[৪] ইয়ান বলেন, সেরে ওঠা ব্যক্তিদের প্লাজমাদাতা হিসেবে এগিয়ে আসতে হবে। সংক্রমিতদের চিকিৎসায় এটি ব্যবহৃত হবে। একজনের প্লাজমায় তিনজনের চিকিৎসা সম্ভব। এটি সহজ এবং ভ্যাকসিন না আসা পর্যন্ত কার্যকর সমাধান হতে চলেছে। সেরে ওঠা ব্যক্তির রক্ত প্রচুর অ্যান্টিবডির উৎস হতে পারে। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যে প্রোটিন তৈরি করে, তা ভাইরাসকে আক্রমণ করতে পারে।

[৫] অ্যান্টিবডি থাকা রক্তকে বলা হয় ‘ক্যানভ্যালসেন্টস প্লাজমা’। এটি কয়েক দশক ধরে ইবোলা, ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো সংক্রামক রোগে ব্যবহৃত হচ্ছে।

[৬] যুক্তরাষ্ট্রের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডেভিড এল. রেইচ বলেন, হাসপাতালে শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যায় থাকা রোগীদের তারা এ থেরাপি দেবেন। টাইম ম্যাগাজিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত