প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনাভাইরাস আতঙ্কে ১৭ হাজার বাংলাদেশি অবরুদ্ধ, দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭, সংক্রমিত ১১০০

সিরাজুল ইসলাম : [২] দেগু শহরে আছেন চার হাজার বাংলাদেশি। বাংলাদেশি জিয়াউর রহমান বলেন, দেশিদের সঙ্গে ফেসবুক বা অন্য উপায়ে নিয়মিত যোগাযোগ হচ্ছে। তাদের কথাবার্তায় বুঝতে পারছি- তারা ভীষণভাবে আতঙ্কিত। তার এলাকায় প্রায় পাঁচ হাজার লোক বাস করে। কাউকে রাস্তায় বের হতে দেয়া হচ্ছে না।

[৩] তিনি বলেন, দুইদিন আগে তিনি শপিং মলে গিয়েছিলেন বাজার করতে। খাদ্যদ্রব্য তেমন একটা নেই। ফলমূলের অভাব দেখা যাচ্ছে। মানুষজন আগেই সব কিনে ফেলেছে। তিনি হ্যান্ডওয়াশ পাননি।

[৪] দেগু থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে বুসান শহরে থাকেন এ জামান শাওন। তিনি বলেন, বুসান শহরে ৬/৭ জন করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়েছেন। রাস্তায় লোকজন কমে গেছে। আতংক দেখা দিয়েছে। ১০ মিনিট পর পর মোবাইলে টেক্সট মেসেজ করে লোকজনকে নানা স্বাস্থ্য নির্দেশিকা জানাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

[৫] দক্ষিণ কোরিয়ার পুসান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্কুল অব মেডিসিনে সিনিয়র রিসার্চ সায়েন্টিস্ট হিসেবে কাজ করছেন এসএম বখতিয়ার-উল ইসলাম। তিনি বলেন, যেসব বাংলাদেশি পরিবার নিয়ে আছেন তারা বেশি চিন্তিত।

[৬] বাংলাদেশিদের সর্বোচ্চ সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরা করার জন্য বলেছেন রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম। তিনি সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

[৭] হেল্প লাইন নম্বর ১৩৩৯-এ কল করে সব বিষয়ে জানাতে বলেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। সূত্র: বিবিসি, বণিক বার্তা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত