প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গোপনে জামিন পেলো চট্টগ্রামের শীর্ষ সন্ত্রাসী এহতেশামুল হক ভোলা

নিউজ ডেস্ক : সবার অজান্তেই নিরবে কারাগার থেকে বের হয়ে গেলেন চট্টগ্রাম নগর পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী এহতেশামুল হক ভোলা। তার জামিন থেকে কারামুক্তি সবকিছু হলো গোপনে। চট্রগাম প্রতিদিন

ভোলার বিরুদ্ধে সাবেক পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলা, চট্টগ্রাম নার্সিং কলেজের সিনিয়র শিক্ষিকা অঞ্জলী রানী দেবী হত্যা মামলাসহ দেড় ডজন মামলা রয়েছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের প্রথম দিকে পর্যায়ক্রমে সব মামলায় জামিন আদেশ পেলেও নিরাপত্তার কথা ভেবে কিছুদিন পর গত ২৯ ডিসেম্বর গোপনে কারাগার থেকে বের হন ভোলা। সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি) তাকে চট্টগ্রাম আদালত প্রাঙ্গণে দেখেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী।

এহতেশামুল হক ভোলার কারামুক্তির বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. কামাল হোসেন বলেন, সব মামলার জামিনের কাগজপত্র হাতে আসার পর ২৯ ডিসেম্বর এহতেশামুল হক ভোলা কারাগার থেকে ছাড়া পান।

পুলিশ সূত্রে বলে, নগরীর বাকলিয়া এলাকার ত্রাস হিসেবে পরিচিত এহতেশামুল হক ভোলার নিজস্ব সন্ত্রাসী বাহিনী আছে। তার বিরুদ্ধে নগরীর বিভিন্ন থানায় হত্যা, অস্ত্র, চাঁদাবাজির ১৮টি মামলা রয়েছে।

চট্টগ্রাম নার্সিং কলেজের জ্যেষ্ঠ শিক্ষিকা অঞ্জলী রানী দেবীকে ২০১৫ সালের ১০ জানুয়ারি নগরের চকবাজার তেলিপট্টি এলাকায় নিজ বাসার সামনে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরের বছর ৫ জুন নগরীর ও আর নিজাম সড়কে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় খুন হন সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতু।

হত্যাকাণ্ডের ২৩ দিনের মাথায় মো. মনির নামের এক সহযোগীসহ ভোলাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুলিশের তদন্তে উঠে আসে ভোলাই হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্র সরবরাহ করেছিলেন। অনুলিখন : জেবা আফরোজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত