প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘নির্বাচন’, ‘জরিপ’ এবং বিএনপির ‘অন্ধ বিশ্বাস’

 

মোহাম্মদ এ আরাফাত : বিএনপির নেতাকর্মী এমনকি তাদের সাধারণ সমর্থকদেরও অদ্ভুত একটি অন্ধ বিশ্বাস আছে। তারা মনে করে যে, বিএনপি এখন অনেক জনপ্রিয় এবং তারা মনে করে বাংলাদেশে যেকোনো নির্বাচনে বিএনপি বড় ব্যবধানে জিতে যাবে। ২০০৮ সালে ডিসেম্বর মাসে যে নির্বাচনটি হয়েছিলো সেই নির্বাচনেও বিএনপির নেতাকর্মী এবং সাধারণ সমর্থকদের একই রকম অন্ধ ধারণা ছিলো। কিন্তু নির্বাচনে বিপুলভাবে পরাজয়ের পর তারা বলা শুরু করলো যে ১/১১ তত্ত্বাবধায়ক সরকার নির্বাচনে কারচুপি করে আওয়ামী লীগকে জিতিয়ে দিয়েছিলো। এই অন্ধ বিশ্বাসের কোনো ভিত্তি নেই, কিন্তু অন্ধ বিশ্বাস তো অন্ধ বিশ্বাসই। নির্বাচনের মাধ্যমে বিএনপির নেতাকর্মী এবং তাদের সাধারণ সমর্থকদের এই ভুল ভাঙার কোনো সুযোগ নেই। কারণ যে নির্বাচনেই তারা পরাজিত হবে, সেই নির্বাচন যতো সুষ্ঠুই হোক না কেন, তারা সেই নির্বাচনে নিশ্চিতভাবে চুরি হয়েছে বলে ধরে নেয়। তারা সবসময় এ কথা বলতে থাকে সুষ্ঠু নির্বাচন দিন, দেখুন কী হয়। অর্থাৎ তাদের কাছে সুষ্ঠু নির্বাচনের অপর নাম ‘বিএনপির বিজয়’। যেহেতু ‘নির্বাচন’ এ ক্ষেত্রে আর মাপকাঠি থাকছে না রাজনৈতিক দলগুলোর জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের, সে ক্ষেত্রে আমরা বিদেশি কিছু কিছু প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞানভিত্তিক জরিপের উপর নির্ভর করি।

মজার ব্যাপার হলো জামায়াত-বিএনপির নেতাকর্মী এবং তাদের সাধারণ সমর্থকরা সেই জরিপের ফলাফলও মানতে রাজি নয়। আমরা নিজেরাও জরিপ করি। আমাদের নিজেদেরও বিজ্ঞানভিত্তিক জরিপ করার সক্ষমতা এবং দক্ষতা আছে। আমরা বিভিন্ন সময়েই বিজ্ঞানভিত্তিতক জরিপের মাধ্যমে পুরো বাংলাদেশের মানুষ কী ভাবছে সেই বিষয়ে জানার চেষ্টা করি। রাজনৈতিক দলগুলোর জনপ্রিয়তা কখন কেমন আছে বা থাকে তা আমরা বিভিন্ন সময় জরিপের মধ্য দিয়ে যাচাই করি। যদিও আমরা জরিপের মাধ্যমে যে ফলাফল হাতে পাই, তাতে আমরা জানতে পারি দলগুলোর জনপ্রিয়তা কেমন, কিন্তু সেগুলো আমরা রেফারেন্স হিসেবে ব্যাবহার করি না।

বিএনপির নেতাকর্মী এবং তাদের সাধারণ সমর্থকরা আমাদের করা জরিপের ফলাফল নিয়ে যৌক্তিকভাবেই সন্দেহ প্রকাশ করতেই পারে। কিন্তু মজার কথা হলো তারা আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানগুলোর জরিপের ফলাফল বিএনপির বিপক্ষে গেলে, সেই জরিপকেও তারা ‘ভুয়া’ বলে আখ্যা দেয়। জরিপের ফলাফল কেন সঠিক নয়, তার কোনো যৌক্তিক ব্যাখ্যাও তারা দেয় না। মোটামুটি গায়ের জোরেই জরিপের এই ফলফলগুলোকে তারা প্রত্যাখ্যান করে। তাদের কাছে জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের একমাত্র মাপকাঠি হলো তারা নিজেরা যা ভাবে এবং বিশ্বাস করে সেটাই। এই অন্ধ বিশ্বাস নিয়ে বর্তমান যুগে রাজনীতিতে তারা কতোদিন টিকে থাকবে আমার জানা নেই। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত