প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘মোনাবী অল বাংলাদেশ’ ভুয়া কোম্পানী গ্রাহকের সাড়ে ৩ কোটি টাকা নিয়ে উধাও

জিয়া উদ্দিন সিদ্দিকী, বরগুনা প্রতিনিধি : বরগুনার আমতলীতে পণ্য বিক্রি ও টাকা জামানত রাখার নামে মোনাবী অল বাংলাদেশ নামের একটি ভুয়া কোম্পানী বিক্রয় প্রতিনিধি ও গ্রাহকদের প্রায় সারে ৩ কোটি টাকা নিয়ে পালিয়েছে। এতে এ কোম্পানীর ২ শত ৫ জন বিক্রয় প্রতিনিধি ও ১ হাজার গ্রাহকরা সর্বস্ব হারিয়ে পথে বসে গেছে।

জানাগেছে, সেপ্টেম্বর ২০১৮ সালে মোনাবী অল বাংলাদেশ নামের এ ভুয়া কোম্পানীটি আমতলী পৌর শহরের সাকিব প্লাজার তৃতীয় তলায় অফিস খুলে পন্য বিক্রি ও অধিক মুনাফা লাভের প্রলোভন দেখিয়ে বিক্রয় প্রতিনিধি ও গ্রাহক সংগ্রহ করে।

এখানে গত এক বছর পর্যন্ত তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। গ্রাহক সংগ্রহের জন্য তারা এই উপজেলায় ২শত ৫জন বিক্রয় প্রতিনিধি নিয়োগ দেয় কোম্পানীর চেয়ারম্যান মো. জামাল হোসেন মুকুল।

প্রতিনিধি নিয়োগে কোম্পানী জামানত বাবদ প্রতি জনের কাছ থেকে ৭০ হাজার টাকা জামানত রাখেন। এরপর নিয়োগপ্রাপ্ত প্রতিনিধিদের কোম্পানীর পক্ষ থেকে মাস ব্যাপী প্রশিক্ষন দেয়। শুরুতে মোনাবী অল বাংলাদেশের কার্যক্রম নিয়ে আমতলীর জনমনে সন্দে ছিল। গত সেপ্টেম্বর মাসে পূর্বের অফিস পরিবর্তন করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ কম্পেক্সে দক্ষিণ পাশে একটি নির্জন এলাকায় অফিস ভাড়া নেয়।

প্রতিনিধিদের বেতন ভাতা দেয়ার কথা ছিল। কোম্পানীর চেয়ারম্যান মো. জামাল হোসেন মুকুল নিজে উপস্থিত হয়ে তাদের বেতন পরিশোধ করবেন।কিন্তু তার ফোন বন্ধ থাকায় প্রতিনিধিদের মনে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। এক সময় উপস্থিত প্রতিনিধিরা অফিসে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর করে। কোম্পানী টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার এ খবর দ্রুত আমতলী পৌর শহরে ছড়িয়ে পড়লে সেখানে শতাধিক গ্রাহক জড়ো হন। এ ঘটনার পর থেকে কাম্পানীর চেয়ারম্যানসহ সকল কর্মকর্তাদের মুঠোফোন বন্ধ রয়েছে।

আমতলী থানার ওসি মো. আবুল বাশার বলেন, মোনাবী অল বাংলাদেশ নামের একটি ভুয়া কোম্পানী গ্রাহকদের টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সংবাদ পেয়েছি। অভিযোগ পেলে তাদের বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। সম্পাদনা : রাকিবুল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত