প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘ধর্ষক মজনুর ডিএনএ পরীক্ষা করতে হবে’

যুগান্তর : প্রকৃত অপরাধী নিশ্চিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার মজনুর ডিএনএ পরীক্ষার দাবি জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম।

একই সঙ্গে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান, মাদক বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ নেয়া ও ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা চিহ্নিত করে বিশেষ নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে এসব দাবি জানানো হয়।

বক্তারা বলেন, সন্ধ্যা ৭টার সময় রাজধানী ঢাকায় ক্যান্টনমেন্টের মতো সুরক্ষিত এলাকার পাশে রাস্তা থেকে একজন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়। এ থেকেই বোঝা যায় সারাদেশে নারীদের নিরাপত্তা বলতে কিছু নেই।

বিচারহীনতার রেওয়াজ, আইনের দীর্ঘসূত্রিতা, নারীর প্রতি সমাজের অধস্তন দৃষ্টিভঙ্গি, মাদক-পর্নোগ্রাফির বিস্তার ইত্যাদির ফলে নারী-শিশু নির্যাতন-ধর্ষণ-হত্যা মহামারী পর্যায়ে পৌঁছেছে। এ জন্য এ সব নির্মূলে সরকারের সব সংস্থাকে এগিয়ে আসতে হবে। এছাড়া সাধারণ জনগণকেও সজাগ ভূমিকা পালন করতে হবে।

তারা বলেন, কুর্মিটোলার ওই জায়গাটিতে আগেও নানা অপরাধমূলক ঘটনা ঘটেছে। ছিনতাই ছিল নিয়মিত ঘটনা। মাদকাসক্ত-ভবঘুরেদের আড্ডা এই এলাকায়। সেখানে আলোকসল্পতাও ছিল। তাহলে রাষ্ট্র ও পুলিশ প্রশাসন আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় কি ভূমিকা রেখেছে।

তারা এতদিন কি কাজ করেছে, সেটা এখন দৃশ্যমান। তারা যদি সচেষ্ট ভূমিকা পালন করতো তাহলে সেদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ধর্ষণ হতো না। সেখানে নানা ধরনের অনৈতিক কাজ হতো না।

বক্তারা আরও বলেন, সারা ঢাকা শহরে যেসব ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা রয়েছে, পুলিশ প্রশাসনের দায়িত্ব নিয়ে নিরাপত্তার চাদরে ছেয়ে ফেলতে হবে। যাতে আর কোনো অপরাধী অপরাধ না করতে পারে। আর কেউ ধর্ষণ না হয়, সব ধরনের জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেয়া হয়।

এ সময় সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি রওশন আরা রুশোর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শম্পা বসুর পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মহিলা ফোরামের ঢাকা নগর শাখার সদস্য রুখসানা আফরোজ আশা, নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সদস্য জেসমিন আক্তার প্রমুখ।

সর্বাধিক পঠিত