প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় বেগম রোকেয়ার স্বপ্নসারথী হয়ে কাজ করছে সরকার, বললেন প্রধানমন্ত্রী

আবুল বাশার নূরু: সোমবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন ও রোকেয়া পদক ২০১৯ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে যেভাবে এগিয়ে গেছে দেশ, তেমনি নারীর ক্ষমতায়নেও এগিয়েছে। নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় বেগম রোকেয়ার স্বপ্নরের সারথী হয়ে কাজ করছে সরকার। নারীমুক্তির অগদূত বেগম রোকেয়ার আদর্শে নারী-সমাজকে উজ্জীবিত হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে নারীদের বিনিয়োগ করতে আহ্বান জানাই। নারী উদ্যোক্তাদের পাশে সরকার সব ধরনের সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেবে। বেগম রোকেয়া নারীদের নিয়ে যে স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছি। নারীরা একদিন লেখাপড়া শিখে জজ, ব্যারিস্টার হবে। বেগম রোকেয়ার এই স্বপ্ন এখন বাস্তব। নারীরা শুধু জজ-ব্যারিস্টার নয় এখন সব জায়গাতেই নারী দক্ষতার সঙ্গে কাজ করছে। বেগম রোকেয়ার আদর্শ ধারণ করে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমাদের কাজ করে যেতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সমাজের অর্ধেক জনসংখ্যা হলো নারী। সেই নারীদের বাদ দিয়ে একটি সমাজের কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন সম্ভব না। বর্তমানে নারী-পুরুষ সমন্বিতভাবে কাজ করছে। এ কারণে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। সরকার নারীকে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তরের জন্য জাতীয় কৌশল, নীতি ও পরিকল্পনা গ্রহণের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সনদ ও এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে।

মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বেগম ফজিলাতুনন্নেসা ইন্দিরা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন্নাহার।
অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বেগম রোকেয়া পদকের জন্য মনোনীতদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। পদকপ্রাপ্তরা হলেন বেগম সেলিনা খালেক, অধ্যক্ষ শামসুন নাহার, ড. নুরুন্নাহার ফয়জননেসা, পাপড়ি বসু ও বেগম আখতার জাহান।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত