প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জন্মদিনে রেখা, কিছু ফিরে দেখা মুহূর্ত

মুসফিরাহ হাবীব : বলিউডের ডিভা খ্যাত অভিনেত্রী রেখার জন্মদিন আজ। বর্ণিল জীবনের ৬৫ বসন্তে পা রাখলেও বয়স তাকে একটুও ছুঁতে পারেনি। এ মুহূর্তে বড় পর্দায় তাকে সেভাবে দেখা না গেলেও, আজও বলিউডে চিরসবুজ ডিভা ভানুরেখা গণেশন রেখা।

বিখ্যাত তামিল অভিনেতা জেমিনি গণেশনের মেয়ে তিনি। অভিনয় হোক কিংবা সৌন্দর্য অথবা ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে নানা বিতর্ক, রেখা সবেতেই অবিচল। জন্মদিনে ফিরে দেখা হল কিংবদন্তি এ অভিনেত্রীর বর্ণাঢ্য জীবনের কিছু দিক:

রেখার জন্ম: ১৯৫৪ সালের ১০ অক্টোবর চেন্নাইয়ে জন্ম রেখার। এ অভিনেত্রীর পারিবারিক নাম ভানুরেখা গণেশন। ‘রেখা’ নামেই সমধিক পরিচিত। অভিনয়ের শুরু: ১৯৬৬ সালে রাঙ্গুলা রত্নম নামে একটি তেলেগু ছবিতে মাত্র ১২ বছর বয়সে শিশুশিল্পী হিসেবে তার চলচ্চিত্র জীবন শুরু হয়। যে কারণে অভিনয়ে আসা: রেখার বাবা ছিলেন তামিল সিনেমার সুপারস্টার এবং মা ছিলেন তামিল অভিনেত্রী পুস্পাবলী। তাদের বিয়ের আগেই রেখা হয়েছিলেন এবং শৈশবে রেখার বাবা তাকে স্বীকার করেননি। তাই শিশুকালেই রেখা স্কুল ত্যাগ করেন এবং পয়সা রোজগারের জন্য অভিনেত্রী হিসেবে তার ক্যারিয়ার গড়ে তোলেন।

নায়িকা হিসেবে বলিউডে যাত্রা শুরু: ১৯৬৯ সালে ‘আনজানা সফর’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে আসেন রেখা। এরপর ১৯৭০ সালে শাওন ভাদো নামে একটি ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে রেখা নায়িকা হিসাবে বলিউডে যাত্রা শুরু করেন। অভিনয়ের স্বীকৃতি: ৪০ বছরের অভিনয় জীবনে রেখা ১৮০টির অধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তিনবার ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জিতেন, দুইবার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ও একবার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে। ১৯৮১ সালে উমরাহ জান চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার লাভ করেন।

ব্যক্তিগত জীবন: রেখা ১৯৯০ সালে দিল্লির প্রখ্যাত শিল্পপতি মুকেশ আগারওয়ালকে বিয়ে করেন। এক বছর পর যখন রেখা অমেরিকায় ছিলেন তখন মুকেশ আত্মহত্যা করেন এবং চিরকুটে লিখে যান কারো কোন দোষ নেই। এর অগে ১৯৭৩ সালে খবর রটে রেখা অভিনেতা বিনোদ মেহরাকে বিয়ে করেছেন, কিন্তু ২০০৪ সালে একটি টিভি চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে রেখা মেহরাকে বিয়ে করার কথা নাকচ করেন এবং তাকে একজন শুভাকাঙ্খী হিসেবে উল্লেখ করেন। বর্তমানে রেখা মুম্বাই এর বান্দ্রায় তার নিজ বাড়িতে বসবাস করছেন। তার বর্ণাঢ্য জীবন নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে জীবনীগ্রন্থ ‘রেখা : দ্য আনটোল্ড স্টোরি’।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত