প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আহমেদ শরীফের অনুদান নিয়ে বিতর্ক সিনেমা পাড়ায়

মহিব আল হাসান : ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় খল অভিনেতা ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাবেক সভাপতি শক্তিমান খল অভিনেতা আহমেদ শরীফ অসুস্থতা দেখিয়ে সরকারের কাছ থেকে অনুদান পেয়েছেন। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে ৩৫ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন। আর এই অনুদান নিয়েই তৈরি হয়েছে নানা বিতর্কের।

জানা গেছে, স্ত্রী ও নিজ চিকিৎসার জন্য তিনি সরকারের কাছে অনুদানের আবেদন করেন। এর পরিপেক্ষিতে গত ১৮ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী তার হাতে ৩৫ লাখ টাকার অনুদান প্রদান করেন। ঠিক কী অসুখের কারণে এ অনুদান নিয়েছেন তা কেউ স্পষ্ট নয়। অনুদানের বিতর্কের পাশাপাশি আরও বিভিন্ন কথা শোনা যাচ্ছে এই অভিনেতার বিরুদ্ধে। বঙ্গবন্ধু বিদ্বেষী হিসেবে পরিচিত আহমেদ শরীফ। বিভিন্ন সময় তিনি জাতির পিতাকে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিয়েছেন।

অনুদান নেওয়ার পর থেকে নানা বিতর্কের মুখে পড়ছেন তিনি। চলচ্চিত্রের সংশ্লিষ্টরা অভিযোগ করছেন এত টাকা পয়সা থাকার পরও কী কারণে তারা এ আর্থিক সহযোগিতা নিচ্ছেন তা বোধগম্য নয়। এখন শিল্পীদের একটা ফ্যাশন হয়ে গেছে যে তারা সরকারের কাছে অসুখের বাহনা করেই একটা আর্থিক সহযোগিতা নিয়ে নিচ্ছেন। সত্যিকার অর্থে এটা চলচ্চিত্রের মানুষের জন্য লজ্জার।

জানা গেছে আহমেদ শরীফের বড় ভাই বিজিএমই’র সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। ডেনিম গ্রুপের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর আহমেদ শরীফ। উত্তরায় তার হাউজিং ব্যবসা আছে। এমন একজন আর্থিক সচ্ছল মানুষের কেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান প্রয়োজন হলো তা নিয়ে এখন উঠছে নানা প্রশ্ন।

আহমদের এমন অনুদান নিয়ে চলচ্চিত্র পাড়ায় চলছে বিতর্ক। কী কারণে এত কিছু থাকার পর অনুদান গ্রহণ করেন। আর কী অসুখ তাদের? এমন প্রশ্নেই ভরে গেছে বিতর্ক।

এ বিষয়টি জানতে আহমেদ শরীফের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি আমাদের সময় ডট কমকে বলেন, ‘আমি শারীরিকভাবে খুবই অসুস্থ, এখন তেমন কিছুই বলতে চাচ্ছিনা। আমাকে আগামী সপ্তাহে আমার সাথে যোগাযোগ করলে বলব। কারণ এখন আমি অনেক অসুস্থ।

এদিকে জানা গেছে, আহমেদ শরীফ প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে চেক নিয়ে সেদিন রাতেই চলচ্চিত্র প্রযোজক শফি বিক্রমপুরীর ৫০তম বিয়েবার্ষিকীর আনন্দ অনুষ্ঠানে যোগ দেন বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, আহমেদ শরীফ েএকজন বাংলাদেশি খল অভিনেতা । সুভাষ দত্ত পরিচালিত ‘অরুণোদয়ের অগ্নিসাক্ষী’ সিনেমার মাধ্যমে পর্দায় নায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু করেন। এরপর ১৯৭৬ সালে দেলোওয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত ‘বন্দুক’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে প্রথম খলনায়ক এর ভূমিকায় অভিনয় করেন। প্রায় আট শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করা এ অভিনেতা জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ পেয়েছেন অসংখ্য পুরস্কার। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি আহমেদ শরীফ টেলিভিশনের জন্য কিছু নাটক-টেলিফিল্ম পরিচালনা করেন।

তার উল্লেযোগ্য সিনেমার মধ্যে আছে, ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’, ‘ক্ষতিপূরণ,’ ‘মহানায়ক,’ ‘শাস্তি,’ ‘বাদশাসহ অসংখ্য সিনেমায় তিনি সুনাম কুড়িয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত